সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২
Online Edition

নেত্রকোনায় গত ২ মাসে ৮টি খুন ৬টি ধর্ষণসহ ৩৭৭টি অপরাধ সংগঠিত

নেত্রকোনা সংবাদদাতা : নেত্রকোনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গতকাল রোববার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা আইন শৃংখলা কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা প্রশাসক ড. মোঃ মুশফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জেলার সার্বিক আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্র্রেট মোঃ আজিজ হায়দার ভুঁইয়া, পৌর মেয়র আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল আমীন, প্রেসক্লাব সম্পাদক শ্যামলেন্দু পাল, রেডক্রিসেন্ট সম্পাদক গাজী মোজাম্মেল হোসেন টুকু, কলমাকান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম ফখরুল ইসলাম ফিরোজ, পূর্বধলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম সুজন এবং রাইফেলস্ ক্লাবের সম্পাদক সারোয়ার জাহান রঞ্জন প্রমুখ।
আইন শৃংখলা কমিটির সভায় জানানো হয় যে, জেলায় গত মার্চ ও এপ্রিল মাসে ৮টি খুন, ৬টি ধর্ষনসহ বিভিন্ন অপরাধ মূলক কর্মকান্ডের জন্য ৩ শত ৭৭টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। জেলার দূর্গাপুর ও কলমাকান্দা সীমান্ত দিয়ে ব্যাপক হারে বিভিন্ন ধরনের মাদক ও গরু চোরাচালানী বেড়ে যাওয়ার কারনে সভায় উপস্থিত সদস্যরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। সভায় বক্তারা মাদকের করাল গ্রাস থেকে যুব সমাজকে রক্ষার জন্য প্রশাসনকে আরো কঠোর হস্তে আইন প্রয়োগের আহবান জানান।
দূরত্ব কমবে ১৫ কিলোমিটার
নেত্রকোনা সদর উপজেলার কে-গাতী ও কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নবাসীর দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবী নেত্রকোনা-সিধলী জিসি সড়ক নির্মাণ অবশেষে পূরণ হতে চলেছে।
স্বাধীনতার পর থেকেই নেত্রকোনা সদর উপজেলার কে-গাতী ও কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইাউনিয়নবাসী নেত্রকোনা সদর থেকে কে-গাতী হয়ে কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নের প্রসিদ্ধ ব্যবসা কেন্দ্র সিধলী বাজার পর্যন্ত একটি পাকা সড়ক নির্মাণের দাবী জানিয়ে আসছিল। এছাড়াও প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর, নৈসর্গিক সৌন্দর্যের অপূর্ব লীলাভূমি ভারতীয় সীমান্তবর্তী দূর্গাপুর ও কলমাকান্দা উপজেলার মধ্যাঞ্চলের বেশীরভাগ জনগন সোজাসুজি কোন পাকা সড়ক না থাকায় তাদেরকে দূর্গাপুর পূর্বধলা হয়ে এবং কলমাকান্দা বারহাট্টা হয়ে নেত্রকোনায় আসতে হয়। এতে যাত্রী সাধারণের একদিকে যেমন সময়ের অপচয় হচ্ছে অপর দিকে তাদেরকে অতিরিক্ত অর্থ ব্যায় করতে হচ্ছে।
 এ অঞ্চলের জনগন জনপ্রতিনিধিদের কাছে বার বার নেত্রকোনা থেকে বড়ওয়ারী হয়ে কে-গাতীর ভিতর দিয়ে সিধলী বাজার পর্যন্ত একটি সোজাসোজি পাকা সড়ক নির্মাণের জোর দাবী জানিয়ে আসছিল। কিন্তু তাদের দাবী বাস্তবায়িত হচ্ছিল না। অবশেষে জনগনের দাবীর প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে নেত্রকোনা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নর্দান বাংলাদেশ ইন্টিগ্রেটেড ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট নেত্রকোনা-সিধলী জিসি সড়ক নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহন করে। নেত্রকোনা রাজুর বাজার থেকে মেদনী ইউনিয়নের বড়ওয়ারী হয়ে কে-গাতী ইউনিয়নের ভেতর দিয়ে কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নের সিধলী বাজার পর্যন্ত ১৩.২৯ কিলোমিটার জিসি সড়ক নির্মাণের জন্য ১৪ কোটি ৪৪ লাখ টাকার টেন্ডার আহবান করে সড়ক নির্মার্ণের কাজ শুরু করে।
নেত্রকোনা এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী এ কে এম ইসমত কিবরিয়া জানান, দ্রুত গতিতে সড়ক নির্মানের কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে সড়কের ৬০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। চলতি অর্থ বছরেই বাকী সড়কের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে। সড়কের নির্মাণ কাজ শেষ হলে নেত্রকোনা থেকে সিধলীর দূরত্ব ১৫ কিলোমিটার কমে যাবে। সড়কের আশপাশের প্রায় অর্ধ লক্ষ লোকের যাতায়াত যেমন সহজ হবে অপরদিকে তাদের সময় ও অর্থ দুটোই বাঁচবে। এতে তাদের জীবন যাত্রার মান উন্নত হবে। এছাড়াও এ অঞ্চলের কৃষকরা তাদের উৎপাদিত পণ্য সহজে পরিবহন করতে পারবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ