রবিবার ০৯ আগস্ট ২০২০
Online Edition

নানা সমস্যায় জর্জরিত হোমনা কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট

দাউদকান্দি (কুমিল্লা): নানা সমস্যায় জর্জরীত হোমনা কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) সংবাদদাতা: হোমনা উপজেলার মাথাভাঙ্গায় প্রতিষ্ঠিত কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের শিক্ষক-শিক্ষার্থী সকলেই অতিষ্ট হয়ে পরেছেন চোরের উপদ্রপে। এখানে প্রতি রাতে চোরের দল শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোন সহ মূল্যবান মালামাল চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে। প্রতিকার পাচ্ছে না শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা, কারণ তাদের বাড়ি দেশের বিভিন্ন এলাকায় আর চোরদের বাড়ি হয়ত আসে-পাশেই। সরেজমিনে গতকাল বুধবার উক্ত প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দিলরুবা আখতার ও মুখ্য প্রশিক্ষক মোঃ শামছুর রহমানের সাথে আলাপ করে জানা যায়, ২০০৬সালে সাবেক কৃষি মন্ত্রী এম.কে. আনোয়ার ১৩একর জমির উপর এই কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট উদ্বোধন করেন, তবে এটির শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয় ২০১১সালের ২০আগষ্ট থেকে। এখানে ডিপ্লোমা ইন এগ্রিকালচার সার্টিফিকেট প্রত্যাশি বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষের সর্বমোট শিক্ষার্থী রয়েছে ৩০০জন। প্রতিষ্ঠানের সীমানা প্রাচির না থাকায় চোরের উপদ্রপে অতিষ্ট সংশ্লিষ্টরা। ছাত্রীরা নিরাপত্তার অভাবে ছাত্রাবাস ছেড়ে পৌর এলাকার বিভিন্ন এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকছেন। এদিকে ২৪৬সিটের অধিক ছাত্র ভর্তি হওয়ায় ৩৬সিটের ছাত্রী হোস্টেলে স্থান করে নিয়েছে ছাত্ররা। তবে অধ্যক্ষের বাসভবনের দরজা-জানালা, আসবাবপত্র, সেনেটারি ফিটিংস্্ কিছুই না থাকায় এটি পরিত্যাক্ত রয়েছে। শিক্ষকদের জন্য ডরমেটোরি না থাকায় তারা কৃষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের বিভিন্ন র”মে থাকতে হচ্ছে। আসে-পাশে গ্যাস থাকলেও এখানে গ্যাস না থাকায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ডাইনিং-এর রান্না চলে লাকরীর আগুনে। তিন বেডের রেস্ট হাউজ ও একটি মসজিদ থাকার কথা থাকলেও ছাত্র-শিক্ষকরা অর্থ সাহায্য সংগ্রহ করে একটি টিনশেড মসজিদ নির্মাণের কাজে হাত দিয়েছে। উর্ধ্বতন প্রশিক্ষকের পদ খালি সহ পাকা ও সেচ নিষ্কাসন নালা, কম্পিউটার ল্যাব, উদ্যান নার্সারি ফার্ম, মেশিনারি হাউজ, থ্রেসিং ফ্লোর, কাউসেড ও পোল্ট্রি সেড ছাড়াই চলছে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। জরুরি ভিত্তিতে সীমানা প্রাচির তৈরি ও চোরের উপদ্রব রোধে যথাযথ কর্তৃপক্ষের প্রতি আবেদন জানিয়েছে সাধারণ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ