সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০
Online Edition

কমেছে পাসের হার ও জিপিএ-৫ 

 

সামছুল আরেফীন : এবারের ফলাফলে সব সূচকই নেতিবাচক। কমেছে পাসের হার, জিপিএ-৫। গতকাল বৃহস্পতিবার এসএসসি, দাখিল ও এসএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষায় ১০ বোর্ডে গড় পাসের হার ৮০ দশমিক ৩৫ শতাংশ। গত বছর গড় পাসের হার ছিল ৮৮ দশমিক ২৯ শতাংশ। পাসের হার কমেছে ৭ দশমিক ৯৪ শতাংশ। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৪ হাজার ৭৬১ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৯ হাজার ৭৬১ জন। এবার জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে ৫ হাজার জন।

গতকাল বৃহস্পতিবার সারাদেশে একযোগে আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি, মাদ্রাসা বোর্ডের দাখিল ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ গতকাল দুপুরে সচিবালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে ২০১৭ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের পরিসংখ্যান তুলে ধরেন। এর আগে সকালে শিক্ষামন্ত্রী বোর্ড চেয়ারম্যানদের সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফলের সার-সংক্ষেপ তুলে দেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবার ১৭ লাখ ৮১ হাজার ৯৬২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৭২২ জন। উত্তীর্ণদের মধ্যে ৭ লাখ ২৭ হাজার ৬৮৮ জন ছাত্র ও ৭ লাখ ৪ হাজার ৩৪ জন ছাত্রী। তিনি আরও বলেন, আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এসএসসিতে পাসের হার ৮১ দশমিক ২১ শতাংশ, মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৭৬ দশমিক ২০ ও কারিগরি বোর্ডে ৭৮ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

গত বছর আট বোর্ডে পাসের হার ছিল ৮৮ দশমিক ৭০, মাদ্রাসা বোর্ডে পাসের হার ৮৮ দশমিক ২২ ও কারিগরি বোর্ডে ৭৮ দশমিক ৬৯ শতাংশ ছিল। বিদেশ কেন্দ্রে পাসের হার ৯৪ দশমিক ২৮ শতাংশ। এ ছাড়া এবার শতভাগ পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২ হাজার ২৬৬টি, যা গত বছর ছিল ৪ হাজার ৭৩৪টি। 

ঢাকা বোর্ড : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকার এবার পাসের হার ৮৬ দশমিক ৩৯ শতাংশ, যা গতবার ছিল ৮৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ।  

এবার পরীক্ষার্থী ছিল ৪ লাখ ৪৯ হাজার ৭২৯ জন। এর মধ্যে ছাত্র ২ লাখ ২৪ হাজার ৯০৫ জন এবং ছাত্রী ২ লাখ ২৬ হাজার ৮২৪ জন। পাস করেছে ৩ লাখ ৮৮ হাজার ৫৪০ জন। এর মধ্যে ছাত্র ১ লাখ ৯২ হাজার ৮০০ জন এবং ছাত্রী ১ লাখ ৯৫ হাজার ৭৪০ জন।

বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৬০৪ জন, পাস করেছে ১ লাখ ২৮ হাজার ২৮ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ১ লাখ ৫৯ হাজার ১২৭ জন, পাস করেছে ১ লাখ ২২ হাজার ৪৫৪ জন। ব্যবসা শিক্ষায় পরীক্ষা দিয়েছে ১ লাখ ৫৭ হাজার ৯৯৮ জন, পাস করেছে ১ লাখ ৩৮ হাজার ৫৮ জন। 

রাজশাহী বোর্ড : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, রাজশাহীর পাসের হার ৯০ দশমিক ৭০ শতাংশ, যা গত বার ছিল ৯৫ দশমিক ৭০ শতাংশ।   

এবার পরীক্ষার্থী ১ লাখ ৬৬ হাজার ৯৩৮ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৮৬ হাজার ৭১৯ জন এবং ছাত্রী ৮০ হাজার ২১৯ জন। পাস করেছে ১ লাখ ৫১ হাজার ৪০৬ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৭৮ হাজার ৫৩ জন এবং ছাত্রী ৭৩ হাজার ৩৫৩ জন। 

বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৬৯ হাজার ২৫৭ জন, পাস করেছে ৬৬ হাজার ২৬০ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৮০ হাজার ৬৪০ জন, পাস করেছে ৬৯ হাজার ৫৮৫ জন। ব্যবসা শিক্ষায় পরীক্ষা দিয়েছে ১৭ হাজার ৪১ জন, পাস করেছে ১৫ হাজার ৫৬১ জন।

কুমিল্লা বোর্ড : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, কুমিল্লায় পাসের হার হচ্ছে ৫৯ দশমিক ৩ শতাংশ, যা গতবার ছিল শতকরা ৮৪ ভাগ।  

এবার পরীক্ষার্থী ১ লাখ ৮২ হাজার ৯৭৯ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৮৩ হাজার ১০০ জন এবং ছাত্রী ৯৯ হাজার ৮৭৯ জন। পাস করেছে ১ লাখ ৮ হাজার ১১ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৪৯ হাজার ৪৫৬ জন এবং ছাত্রী ৫৮ হাজার ৫৫৫ জন।

বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৪৭ হাজার ৯১ জন, পাস করেছে ৩৯ হাজার ৬৩১ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৫৪ হাজার ৯৫৭ জন, পাস করেছে ২২ হাজার ৬০৯ জন। ব্যবসা শিক্ষায় পরীক্ষা দিয়েছে ৮০ হাজার ৯৩১ জন, পাস করেছে ৪৫ হাজার ৭৭১ জন।

যশোর বোর্ড : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, যশোরে এবার পাসের হার শতকরা ৮০ দশমিক ৪ ভাগ, যা গতবার ছিল ৯১ দশমিক ৮৫ শতাংশ।    

এবার পরীক্ষা দিয়েছে ১ লাখ ৫৩ হাজার ৬৭৩ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৭৮ হাজার ১৬০ জন এবং ছাত্রী ৭৫ হাজার ৫১৩ জন। পাস করেছে ১ লাখ ২২ হাজার ৯৯৫ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৬০ হাজার ৯৭১ জন এবং ছাত্রী ৬২ হাজার ২৪ জন। 

বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৩৩ হাজার ২৮৪ জন, পাস করেছে ৩১ হাজার ৭০৫ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৮৪ হাজার ৪১৩ জন, পাস করেছে ৬০ হাজার ৪৪৯ জন। ব্যবসা শিক্ষায় পরীক্ষা দিয়েছে ৩৫ হাজার ৯৭৬ জন, পাস করেছে ৩০ হাজার ৮৪১জন।

চট্টগ্রাম বোর্ড : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, চট্টগ্রাম এবার পাসের হার ৮৩ দশমিক ৯৯ শতাংশ, যা গতবার ছিল ৯০ দশমিক ৪৪ শতাংশ।   

এবার পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ১৭ হাজার ৮৯৭ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৫৫ হাজার ৪৮৫ জন এবং ছাত্রী ৬২ হাজার ৪১২ জন। পাস করেছে ৯৯ হাজার ২২ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৪৬ হাজার ৫৯৮ জন এবং ছাত্রী ৫২ হাজার ৪২৪ জন। 

বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ২৬ হাজার ৫২১ জন, পাস করেছে ২৪ হাজার ৪১৯ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৩৩ হাজার ৪৯৪ জন, পাস করেছে ২৪ হাজার ৫৭০ জন। ব্যবসা শিক্ষায় পরীক্ষা দিয়েছে ৫৭ হাজার ৮৮২ জন, পাস করেছে ৫০ হাজার ৩৩ জন।

বরিশাল বোর্ড : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, বরিশালে এবার পাসের হার ৭৭ দশমিক ২৪ শতাংশ, যা গতবার ছিল ৭৯ দশমিক ৪১ শতাংশ।  

এবার পরীক্ষার্থী ৯৩ হাজার ৬৭৬ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৪৭ হাজার ৩৬১ জন এবং ছাত্রী ৪৬ হাজার ৩১৫ জন। পাস করেছে ৭২ হাজার ৩৫৮ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৩৫ হাজার ৩৯১ জন এবং ছাত্রী ৩৬ হাজার ৯৬৭ জন। 

বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ২৩ হাজার ৪৯২ জন, পাস করেছে ২১ হাজার ৩৭৮ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৩৯ হাজার ৯৫৯ জন, পাস করেছে ২৭ হাজার ৫৭৭ জন। ব্যবসা শিক্ষায় পরীক্ষা দিয়েছে ৩০ হাজার ২২৫ জন, পাস করেছে ২৩ হাজার ৪০৩ জন।

সিলেট বোর্ড : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, সিলেটে এবার পাসের হার শতকরা ৮০ দশমিক ২৬ ভাগ, যা গতবার ছিল ৮৪ দশমিক ৭৭ ভাগ।  

এবার পরীক্ষার্থী ৯৩ হাজার ৯১৫ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৪১ হাজার ৬২৬ জন এবং ছাত্রী ৫২ হাজার ২৮৯ জন। পাস করেছে ৭৫ হাজার ৩৭৪ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৩৩ হাজার ৬৫৫ জন এবং ছাত্রী ৪১ হাজার ৭১৯ জন।

বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ১৮ হাজার ৭২৮ জন, পাস করেছে ১৭ হাজার ২৭ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৬৫ হাজার ৭০৪ জন, পাস করেছে ৪৯ হাজার ৯১৩ জন। ব্যবসা শিক্ষায় পরীক্ষা দিয়েছে ৯ হাজার ৪৮৩ জন, পাস করেছে ৮ হাজার ৪৩৪ জন।

দিনাজপুর বোর্ড : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, দিনাজপুর এবার পাসের হার ৮৩ দশমিক ৯৮ শতাংশ, যা গতবার ছিল ৮৯ দশমিক ৫৯ শতাংশ।    

এবার পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৬৩ হাজার ৫৭২ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৮৪ হাজার ২৮১ জন এবং ছাত্রী ৭৯ হাজার ২৯১ জন। পাস করেছে ১ লাখ ৩৭ হাজার ৩৬২ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৬৯ হাজার ৩৬৩ জন এবং ছাত্রী ৬৭ হাজার ৯৯৯ জন। 

বিজ্ঞান বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৭১ হাজার ১৭৮ জন, পাস করেছে ৬৫ হাজার ৬২৪ জন। মানবিক বিভাগে পরীক্ষা দিয়েছে ৮৬ হাজার ২০৫ জন, পাস করেছে ৬৬ হাজার৪১৬ জন। ব্যবসা শিক্ষায় পরীক্ষা দিয়েছে ৬ হাজার ১৮৯ জন, পাস করেছে ৫হাজার ৩২২ জন।

কমেছে জিপিএ-৫: গতবারের মতো এবারও জিপিএ-৫ পাওয়ার হার কমেছে। এবার পেয়েছে ১ লাখ ৪ হাজার ৭৬১ জন, যা গতবার ছিল ১লাখ ৯ হাজার ৭৬১ জন। ২০১৫ সালে ছিল ১ লাখ ১১ হাজার ৯০১ জন। ২০১৪ সালে ছিল ১ লাখ ৪২ হাজার ২৭৬ জন। 

বরাবরের মতো এবারও সবচেয়ে বেশী জিপিএ-৫ পেয়েছে ঢাকা বোর্ড, এর সংখ্যা ৪৯ হাজার ৪৮১ জন। রাজশাহী বোর্ডে ১৭ হাজার ৩৪৯ জন, কুমিল্লা বোর্ডে ৪ হাজার ৪৫০ জন, যশোর বোর্ডে ৬ হাজার ৪৬০ জন, চট্টগ্রাম বোর্ডে ৮ হাজার ৩৪৪ জন, বরিশাল বোর্ডে ২ হাজার ২৮৮ জন, সিলেট বোর্ডে ২ হাজার ৬৬৩ জন, দিনাজপুর বোর্ডে ৬ হাজার ৯২৯ জন, মাদরাসা বোর্ডে ২ হাজার ৬১০ জন এবং কারিগরী বোর্ডে ৪ হাজার ১৮৭ জন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ