মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

এপ্রিল মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : মাঠে ময়দানে রাজনৈতিক উত্তাপ ছিল না এপ্রিল মাসে, তবে বিবৃতি ও টকশোতে গরম ছিল এপ্রিল। এ মাসে কয়েকটি ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌর নির্বাচন, প্রধানমন্ত্রীর ভারত ও ভূটান সফর ছিল উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক ঘটনা। এপ্রিলে ১১৯টি রাজনৈতিক সন্ত্রাসের তথ্যে নিহতের সংখ্যা ১০। এই ১০ জনের ৮ জনই আওয়ামী লীগের হাতে, ছাত্রলীগের হাতে ১ এবং যুবলীগের হাতে ১ জন খুন হয়। এ মাসে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতায় প্রাপ্ত তথ্যে আহত ৪৮০ জন এবং গ্রেফতার অনেক বেশী হলেও ১৯৬ জন গ্রেফতারের তথ্য পাওয়া গেছে বাকীদের পরিচয় প্রকাশিত হয়নি, গ্রেফতারকৃতরা অধিকাংশই বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মী এবং দন্ডপ্রাপ্ত ৩৮ জন, এই ৩৮ জনের আওয়ামী লীগের ৪, ছাত্রলীগের ৩, বিএনপির ১৭, ছাত্রদল-১০ জন, যুবদল-৩ ও স্বেচ্ছাসেবক দলের ১। প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে এপিল মাসে নিহত হয়- (১) নোয়াখালীর হাতিয়ায় চরকিং ইউনিয়নে দলীয় কোন্দলে উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন চেয়ারম্যানের ভাই যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আশরাফ উদ্দিন ও (২) যুবলীগ কর্মী নূর আলম নিহত হয় প্রতিপক্ষের, (৩) পাবনার বেড়ায় স্ত্রী জোবেদা খাতুনকে পিটিয়ে হত্যা করে আওয়ামী লীগ নেতা, (৪) কুমিল্লার মুরাদনগরে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে ফারুক ও (৫) সাইদুর রহমান নামে দু’কর্মী খুন হয়, (৬) নরসিংদীর রায়পুরায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে শারফিন ও (৭) মাসুদ মিয়া নামে দু’জন নিহত হয়, (৮) ফরিদপুরের শালথায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে জিয়া শেখ নামে একজন নিহত হয়, (৯) চট্টগ্রামে লালখান বাজারে ছাত্রলীগের দলীয় কোন্দলে শরীফ ওরফে টেম্পু নিহত হয় এবং  (১০) পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে দলীয় কোন্দলে যুবলীগ নেতা রাসেল শেখ খুন হয়।

আওয়ামী লীগ : ২ এপ্রিল বগুড়ার ধুনটে চাঁদাবাজি ও মারধরের অভিযোগে আট আওয়ামী লীগ নেতার নামে মামলা করলেন অপর আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদুল হক বাচ্চু। মার্চ মাসে স্বাধীনতা মেলা থেকে চাঁদা দাবী করে চিকাশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আলেফ বাদশা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস আলম শ্যামল, পৌর যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক চপল মাহমুদ, আওয়ামী লীগ নেতা হাসান খসরু খান নুপুর ও পাখি মন্ডলসহ আটজন। এ সময় তারা দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে মাসুদুল হক বাচ্চু ও কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতাকে মারধর করে বিশ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। ৩ এপ্রিল ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে চর হরিরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৮নংওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন ৫৭পিস ইয়াবাসহ আটক হয় পুলিশের হাতে। ৫ এপ্রিল রাজশাহী দূর্গাপুরের কালীগঞ্জ উচ্চবিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন, শরীরচর্চা শিক্ষক সাইফুল ইসলাম ও রবিউল ইসলাম নামে অপর একজন আওয়ামী লীগের হামলায় আহত হয়। বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সাবেক সভাপতি এবং জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদ সরদার ও তার লোকজন তাদের মারধরসহ অফিস কক্ষ ভাংচুর করে। রাজশাহী বোর্ডের নির্দেশে কমিটি গঠনের জন্য তালিকা পাঠায় স্কুল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু কেন আব্দুল মজিদ সরদারকে না জানিয়ে এই তালিকা পাঠানো হয়, সেজন্য এই হামলা চালানো হয়। হামলার সময় তারা প্রধান শিক্ষককে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে চোখের নিচে মারাত্মক জখম করে। নাটোরের বড়াইগ্রামের সাতইল গ্রামে ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা ডাঃ সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারীকে অতিথি না করায় তার সমর্থকদের হামলায় লুতু মিয়াসহ আহত হয় পাঁচজন। অনুষ্ঠানে এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসকে প্রধান অতিথি করা হয়। 

৭ এপ্রিল যশোরের বাঘারপাড়া ঘোষনগর গ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে বাহারুল ও কাওছারের নেতৃত্বে ৮-১০ জন তাপস অধিকারীর বাড়ীতে হামলা চালিয়ে কানাই অধিকারী, চন্না অধিকারী, স্বপন অধিকারী, কার্তিক ও উজ্জলসহ ছয়জনকে কুপিয়ে জখম করে। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত আট জনকে আটক করে। ৮ এপ্রিল মাদারীপুরের কালকিনিতে নির্বাচনে চাঁদাবাজীর অজুহাত সাজিয়ে আওয়ামী লীগ নেতারা দৈনিক যায়যায়দিন প্রতিনিধি শহীদুল ইসলামকে গাছের সাথে বেঁধে পিটিয়ে আহত করে। পরে তাদের দেয়া মামলায় শহীদুল ইসলামকে আটক করে এবং সাংবাদিকের দায়ের করা মামলায় আওয়ামী লীগের তিন জনকেও আটক করে পুলিশ। ১০ এপ্রিল নোয়াখালীর হাতিয়ায় চরকিং ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎিসাধীন অবস্থায় মারা যায় যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিনের ভাই আশরাফ উদ্দিন। হাতিয়ায় তার লাশ নিয়ে আসলে উত্তেজনায় ওসিকে লাঞ্ছিত করে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীরা। গত ৩০ মার্চ আশরাফসহ দু’জন বরিন্দ্র গ্রুপের হাতে আহত হয়। ১০ এপ্রিল লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে লামচর ইউপি নির্বাচনে বিষ্ণভল্লবপুর গ্রামে বিএনপির চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফেরদৌসী আক্তারসহ তার সমর্থকদের উপর হামলা করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাহেনারা পারভিনের লোক ছাত্রলীগ-যুবলীগের ফয়েজ, মাজেদ, বাবু, মাসুদ, সেলিম ও তুহীনের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী। হামলায় অন্য আহতরা হলো- শারমিন আক্তার, মাকসুদ আলম, মানিক হোসেন, জহিরুল ইসলাম, আবুল কাশেম ও সেলিম হোসেন। টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ভাওড়া ইউপি নির্বাচনে হাড়িয়া কামারপাড়া এলাকায় সতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আব্দুস সবুরের পোষ্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আমজাদ হোসেনের লোকজন হামলা করে নূরুল ইসলাম, রুমেল ফারুক, লোকমান ও ইমরানকে আহত করে। হামলায় নৌকার কর্মী আলম, হান্নান, নজরুল, পাভেল ও ইলিয়ানের নেতৃত্বে ১৫-২০ জন অংশ গ্রহণ করে।

১১ এপ্রিল ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুলতান হোসেন খানসহ ছয় জনের নামে হত্যা প্রচেষ্টা মামলা করে ব্যবসায়ী উত্তম দাস। গত ২৭ মার্চ উত্তমকে হকিষ্টিক ও চাপাতি দিয়ে মারধর করে আসামীরা। ১২ এপ্রিল নড়াইলের লোহাগড়ার বড়দিয়া বহুমূখী উচ্চবিদ্যালয়ে চাঁদার দাবীতে প্রধান শিক্ষক এ.বি.এম কামরুজ্জামানের নাক ফাটালেন কোটাকোল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ৭নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক। ১লা বৈশাখে ছাত্রদের খরচের জন্য দশ হাজার টাকা দাবী করেন আব্দুর রাজ্জাক, প্রধান শিক্ষক বিধি বহির্ভূত ভাবে টাকা দিতে অস্বীকার করার তাকে কিল-ঘুষি দিয়ে নাক ফাটায়। তিনি আগে পরেও এভাবে বিভিন্ন সময়ে টাকা দাবী করেন। ফেনীর পরশুরামের সুবার বাজারে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত আটজন। মির্জানগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান নূরুজ্জামান ভুট্টু এবং যুবলীগ ইউনিয়ন সভাপতি ফজলুল বারী মুনসুর গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে সোহেল, সাদ্দাম, নবী, ফিরোজ আহমেদ ও ইয়াকুবসহ আটজন আহত হয়। টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলের বিপক্ষে অবস্থান নেয়ায় বহুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নাজমুল হুদা, কোষাধ্যক্ষ ও স¦তন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজাউল করীম বাবুল, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক ইকবাল হোসেন লিটন এবং সদস্য আব্দুল আওয়ালকে সংগঠন থেকে সাময়িক ভাবে বহিস্কার করে দলটি। ১৩ এপ্রিল মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বৈশাখী মেলার স্টল বরাদ্দ নিয়ে যুবলীগ-আওয়ামী লীগ সংঘর্ষে আহত সাতজন। সংঘর্ষে আহত হলো- ছাত্রলীগ মতিলাল ডিগ্রী কলেজ শাখার সভাপতি ওবায়দুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিনসহ সাতজন। নোয়াখালীর হাতিয়ায় চরকিং ইউনিয়নে শুল্লাকিয়া গ্রামে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে নিহত হয় নূর আলম নামে এক যুবলীগ কর্মী। সংঘর্ষে মোক্তার হোসেন, মনির উদ্দিন, সেলিম উদ্দিন, আমির হোসেন ও আবুল বাশারসহ আহত দশজন। তিনদিন আগে নিহত আশ্রাব উদ্দিনের হত্যাকারী আবু তাহের ও মুরাদের নেতৃত্বে প্রকাশ্যে গুলি চালিয়ে এ হত্যাকান্ড ঘটায়। চুয়াডাঙ্গা জেলা কৃষক লীগের নব গঠিত কমিটি বাতিলের দাবীতে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করে জেলা আওয়ামী লীগ ও তাদের অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। ঢাকায় বসে টাকার বিনিময়ে ১২ এপ্রিল জেলা কমিটি গঠন করে বলে তারা অভিযোগ করে। সমাবেশে অংশ গ্রহণ করে জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আরশাদ আলী চন্দন, জেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক আরেফিন আলম বাচ্চু, যুবলীগ নেতা নাঈম হাসান জোয়ার্দার, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল কাদের, রেজাউল করীম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম আসমান ও দামুরহুদা উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক এ্যাডঃ আবু তাহের প্রমূখ।

১৫ এপ্রিল পাবনার বেড়ায় হাটুরিয়া চালাপাড়া গ্রামে আওয়ামী লীগ ওয়ার্ড সভাপতি রজব আলী প্রামানিক তার স্ত্রী জোবেদা খাতুনকে পিটিয়ে আহত করে, পরে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে ১৬ এপ্রিল জোবেদা মারা যায়। উল্লেখ্য, রজব আলীর আরো দু’টি বৌ আছে। ১৬ এপ্রিল ফেনীর একরাম হত্যা মামলার চার্জসীট ভূক্ত আসামী ফুলগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম-সম্পাদক জাহিদ চৌধূরীকে নির্মাণ সুপার মার্কেটের সামনে পুলিশ চেক পোষ্ট থেকে বিদেশী রিভলবার, ৩ রাউন্ড গুলি, ১টি এলজি ও চারটি কার্তুজসহ আটক করে। শরীয়তপুরের নড়িয়ায় আন্ধার বাজার এলাকায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত বিশজন। রাজনগর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন গাজী এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ যুগ্ম-সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক খাঁ গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে আলী আকবর কাজী, রিনা বেগম, রওশন আরা বেগম, সম্রাট, সাগর মাদবর, মীরবহর আক্তার হোসেন, শাহীন সরদার ও আরিফ মাদবরসহ আহত বিশজন। এ সময় তারা ভাংচুরসহ ব্যাপক বোমাবাজী করে। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত মর্মে ছয় জনকে আটক করে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে ইউপি নির্বাচনে আইয়ুবপুরে দশানী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে বিএনপির প্রার্থী নজরুল ইসলামের এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে ব্যালট পেপারে গণ সীল মারে আওয়ামী লীগ। লক্ষ্মীপুর সদর ও রামগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে মজুপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পাশের ইউপি চেয়ারম্যান কামাল হোসেন ভূঁইয়ার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতা-কর্মীরা বিএনপির এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে ব্যাপক জাল ভোট দেয়। ফরিদপুরে আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত নেতা মোকাররম মিয়া বাবুর নামে অবৈধ ভাবে সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপনের দায়ে মামলা করে দুদক।

 

১৮ এপ্রিল কুমিল্লার মুরাদনগরে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে ফারুক ও সাইদুর রহমান নামে দুই কর্মী খুন ও অপর পনের জন আহত হয়। আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি সদস্য আশরাফ এবং আলাউদ্দিন আনিস গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষ হয়। বগুড়ার শিবগঞ্জে ময়দানহাট্টা ইউনিয়নে দশ টাকা কেজি দরের চাল বিতরণে দুর্নীতি করায় ৭নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের সভাপতি জিহাদ হোসেনের ডিলারশীপ বাতিল করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জি.এম শাহনেওয়াজ। পরে জিহাদের গুদাম থেকে ৫০ বস্তা চাল ও ১০০টি খালি বস্তা উদ্ধার করে পুলিশ। ১৯ এপ্রিল নরসিংদীর রায়পুরার বাঁশখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দৃ’গ্রুপের সংঘর্ষে শারফিন নামে একজন নিহত এবং মাসুদ মিয়াসহ অর্ধশত আহত হয়। আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল হক এবং সাবেক চেয়ারম্যান ও অপর আওয়ামী লীগ নেতা হাফিজুর রহমান সরকার সাহেদ গ্রুপের মধ্যে এই ষংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষ, বাড়ী-ঘরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট করার ফলে প্রশাসন সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করে। লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী বাছাই করতে ভোটাভুটি হয় আওয়ামী লীগে। এই ভোটাভুটিতে ভোট না দেয়ার অভিযোগে আওয়ামী লীগ নেতা ও চরআলখী ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী সাহেদ আলী মনুর সমর্থকরা ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল খায়ের, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল হালিমকে অপহরণ করে মারপিট করে। ২০ এপ্রিল নরসিংদীর রায়পুরায় আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে মাসুদ মিয়া নামে একজন ঢাকা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। উল্লেখ্য, মাসুদ মিয়া গত ১৯ এপ্রিল সংঘর্ষের সময় আহত হয়। গত দুই দিনে সংঘর্ষ, হামলা, দু’শ ঘর-বাড়ী ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়। সংঘর্ষে অন্য আহতরা হলো- কাউছার, নূর মোহাম্মদ, রহিম বাদশা, নাহিদ, ইসমাইল ও মাসুদসহ আরো অনেকে। ঝালকাঠি পৌর মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা লিয়াকত আলী তালুকদারের ছেলে মনিরুল ইসলাম তালুকদার অর্থ আত্মসাতের মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তার জামিন নামঞ্জুর তাকে জেলা হাজতে পাঠায় আদালত। বগুড়ায় আওয়ামী লীগ জেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আচরণ বিধি লংঘন করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে মতবিনিময় সভার আড়ালে নির্বাচনী প্রচারণার আয়োজেন করে। হোটেল ক্যাসেল সোয়াদে অনুষ্ঠিত এ সভায় জেলা পরিষদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী ডাঃ মকবুল হোসেনকে বিজয়ী করার আহবান জানান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন। ফেনীর ছাগলনাইয়ায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপ মুেখামুখি। গোপাল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল হক মানিক এবং আওয়ামী লীগ কর্মী মহিউদ্দিন বাদল গ্রুপের দ্বন্দ্বে নিয়ামত উল্লাহ সোহেলকে অপহরণ ও মারধর করা হয়। (চলবে)

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ