বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

নিজ সংস্থার ক্রীড়াবিদদের পুরস্কৃত করলো আনসার

স্পোর্টস রিপোর্টার : ২০১৬ সালে বিভিন্ন খেলার জাতীয় পর্যায়ে নিজ দলের পদক জয়ী খেলোয়াড়দের পুরুস্কৃত করলো  বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী। গতকাল সোমবার খিলগাঁওস্থ বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদর দপ্তরে ক্রীড়াবিদদের সংবর্ধনা প্রদানের পাশাপাশি আর্থিক পুরস্কারও প্রদান করা হয়েছে। ক্রীড়াবিদদের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়েছেন বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মিজানুর রহমান খান। গত এসএ গেমসে যে কয়টি পদক জিতেছে বাংলাদেশ তার মধ্যে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যদের হাতে উঠেছে ১ টি স্বর্ণ, ৬টি রৌপ্য ও ১১ টি তা¤্র। দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় এ ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় সাফল্য পাওয়া নিজ সংস্থার ক্রীড়াবিদদের আগেই সংবর্ধনা ও পুরস্কার প্রদান করেছে বাংলাদেশ আনসার। উল্লেখ্য, গত বছর জাতীয় পর্যায়ে ১৫ টি খেলা থেকে আনসার ৯২টি স্বর্ণ, ৭৯ টি রৌপ্য ও ৬৯টি ব্রোঞ্জপদক পেয়েছে। ১৫টি প্রতিযোগিতার ১০টিতে সংস্থাটি হয়েছে চ্যাম্পিয়ন, ৪টিতে রানার্সআপ ও একটিতে তৃতীয়। জিমন্যস্টিকস, ফেন্সিং, আরচারি, অ্যাথলেটিক, টেবিল টেনিস, কুস্তি, তায়কোয়ানদো, উশু, কারাতে ও শরীরগঠনের প্রতিযোগীদের মধ্যে ১১ লাখ ৮১ হাজার ৫০০ টাকা পুরস্কার প্রদান করা হয়।  এ খেলাগুলোর জাতীয় প্রতিযোগিতা থেকে আনসার ও ভিডিপি ৫৯টি স্বর্ণ, ৫৩টি রৌপ্য ও ২২টি ব্রোঞ্জপদক জিতেছে। অনেক খেলোয়াড় আছেন যারা আনসারে স্থায়ীভাবে চাকরি করেন এবং কিছু আছে শুধু ভাতা পান। যে কারণে পুরস্কার প্রদানের ক্ষেত্রে খেলোয়াড়দের কয়েকটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করেছিল আনসার। ক্যাটাগরি অনুযায়ী স্থায়ী খেলোয়াড়দের একেক ইভেন্টে স্বর্ণ জয়ের জন্য ১২ হাজার টাকা, রৌপ্যের জন্য ৭ হাজার এবং ব্রোঞ্জের জন্য ৬ হাজার টাকা করে পুরস্কার দেয়া হয়েছে। তিন জনের দলগত ইভেন্টে স্বর্ণজয়ীরা পেয়েছেন ৮ হাজার টাকা, রৌপ্যজয়ীরা ৬ হাজার টাকা এবং ব্রোঞ্জজয়ীরা ৪ হাজার টাকা করে। তিন জনের অধিক দলগত ইভেন্টে স্বর্ণের জন্য ৬ হাজার টাকা, রৌপ্যের জন্য ৪ হাজার টাকা এবং ব্রোঞ্জের জন্য ৩ হাজার টাকা করে পেয়েছেন সংস্থার ক্রীড়াবিদরা। ভাতাপ্রাপ্ত খেলোয়াড়দের যারা স্বর্ণ জিতেছেন তাদের মাসিক ভাতা ৫ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১২ হাজার টাকা, রৌপ্যজয়ীয়ের ৭ হাজার এবং ব্রোঞ্জজয়ীদের ৬ হাজার টাকা করা হয়েছে। এর বাইরেও বিশেষ পুরস্কার হিসেবে এককে স্বর্ণজয়ী ৫ হাজার টাকা, রৌপ্যজয়ী সাড়ে ৩ হাজার টাকা এবং ব্রোঞ্জজয়ী আড়াই হাজার টাকা করে পেয়েছেন। দলগতভাবে এ বিশেষ পুরস্কার ৪ হাজার, আড়াই হাজার ও দেড় হাজার টাকা। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন নিমাই কুমার দাস পরিচালক (ক্রীড়া ও সংস্কৃতি), একেএম মিজানুর রহমান, উপ-পরিচালক (প্রশিক্ষণ), বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহম্মদ নুরুল আলম।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ