মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বিভিন্ন ইস্যুতে সমালোচনার মুখে ট্রাম্প

২৪ এপ্রিল, বিবিসি/দ্য হিল/ওয়াশিংটন পোস্ট : ২৯ এপ্রিল হোয়াইট হাউসে দায়িত্ব গ্রহণের ১০০ দিন পূর্ণ হবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। শনিবার এক টুইট বার্তায় দিনটি উপলক্ষ্যে পেনসেলভেনিয়ায় সমাবেশের ঘোষণা দেন ট্রাম্প। তবে শুক্রবারের পোস্টে তিনি বলেন, আমি যত ভাল কাজই করি না কেন মিডিয়ার মানদন্ডে সেটি ব্যর্থ হবে।
ওয়াশিংটন পোস্ট-এবিসি নিউজের যৌথ জরিপে দেখা যায়, ট্রাম্পের জনপ্রিয়তা ৪২ শতাংশ। যা ১৯৪৫ সালের পর সবচাইতে কম। ৫৩ শতাংশ মার্কিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাজকর্মে সমর্থন দেন নি। জরিপ অনুযায়ী ট্রাম্পের জনপ্রিয়তা সর্বনি¤œ পর্যায়ে রয়েছে। তবে কট্টর সমর্থকরা ট্রাম্পের পক্ষে থাকলেও নতুন করে কোন সমর্থক বাড়ে নি।
নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে যারা ভোট দিয়েছিলেন তাদের ৯৬ শতাংশ ট্রাম্প প্রশাসনে মুগ্ধতার কথা জানিয়েছেন। এর মধ্যে ২ শতাংশ ট্রাম্পকে ভোট দেয়া ভুল বলে মনে করেন।  হিলারি ক্লিনটনের ভোটারদের মধ্যে ৮৫ শতাংশ পরবর্তী নির্বাচনে হিলারিকে ভোট দেয়ার কথা জানান। যা ট্রাম্পের চেয়ে ১১ শতাংশ কম। সংকটকালের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পে আস্থা রেখেছেন ৪৩ শতাংশ। ওবামা পেয়েছিলেন ৭৩ শতাংশ ভোট।
ট্রাম্পের শততম দিন উপলক্ষে তার ৫০ জন সমর্থক ও ৫০ জন বিরোধীর সাক্ষাৎকার নেয় বিবিসি। দু’পক্ষই অভিবাসন, গর্ভপাত এবং সরকারের ভূমিকা নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন মত পোষণ করেন। ট্রাম্পের সিরিয়াতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা সম্পর্কে তার কিছু সমর্থক দ্বিমত পোষণ করেন আবার হিলারি ক্লিনটনের কিছু সমর্থক ট্রাম্পের এই পদক্ষেপকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখেন।
স্বাস্থ্যনীতি এবং কর এখন ট্রাম্পের কাছে সবচাইতে বড় চ্যালেঞ্জ। তবে ট্রাম্পকে যারা ভোট দিয়েছেন তারা মনে করেন ট্রাম্প তার দায়িত্ব চমৎকারভাবে পালন করছেন আর যারা ভোট দেন নি তারা মনে করেন ট্রাম্পের নীতি পরিবর্তন করা উচিত,এদের মধ্যে কেউ কেউ ট্রাম্পের অভিশংসন দাবি করেন।
আরাকানসাসের জেন ব্যারি (৫৮) বলেন, একজন রিপাবলিকান হয়েও আমি ট্রাম্পের গর্ভপাত নীতির বিরোধী। রেক্স টিলারসনকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ করায় আমি সত্যিই অভিভূত। অন্যদিকে তিনি অ্যাঙ্গোলা মার্কেলের সঙ্গে হ্যান্ডশেক করতে প্রত্যাখান করেছেন। তিনি যত নিচু কাজ করেছেন এটি তার মধ্যে একটি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ