মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

ফ্রান্সে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পুলিশ বিক্ষোভকারী ব্যাপক সংঘর্ষ

২৪ এপ্রিল, লে মন্ড : ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম দফার ফলাফল প্রকাশের পর প্যারিসে তুমুল বিক্ষোভ-সহিংসতা হয়েছে। ফলাফলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়ে অরাজপন্থী (অ্যানার্কিস্ট সমাজতন্ত্রী যারা সর্বার্থে রাষ্ট্রব্যবস্থা বিলোপের পক্ষে), ফ্যাসিবাদবিরোধী এবং অন্যরা রাস্তায় নেমে এলে পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়।
নির্বাচনের প্রথম ধাপে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে জয়ী হন নির্দলীয় মধ্যপন্থী ইমানুয়েল ম্যাক্রন ও উগ্র-ডানপন্থী ন্যাশনাল ফ্রন্ট পার্টির মেরিন লে পেন। ফ্রান্সের নির্বাচনি ব্যবস্থা অনুযায়ী, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম পর্বে যদি কোনও প্রার্থী ৫০ শতাংশ ভোট অর্জন করতে ব্যর্থ হন,তাহলে দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে অংশ নেন শীর্ষ দুই প্রার্থী। কিন্তু এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম ধাপে নির্বাচিত এ দুই প্রার্থীকে নির্বাচনের প্রথম ধাপে দেখতে রাজি নন অরাজপন্থী (অ্যানার্কিস্ট সমাজতন্ত্রী যারা সর্বার্থে রাষ্ট্রব্যবস্থা বিলোপের পক্ষে), ফ্যাসিবাদবিরোধীরা।
রোববার নির্বাচনের ফলাফল পাওয়ার পর শত শত বিক্ষোভকারী রাস্তায় নেমে আসলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এক পর্যায়ে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে।
ফরাসি সংবাদমাধ্যম লে মন্ডের খবরে বলা হয়, শত শত বিক্ষোভকারী পুলিশের দিকে বোতল ও আতশবাজি ছুড়ে মারে।
স্থানীয় সময় রাত ৯টার দিকে বিক্ষোভকারীরা বোলভর্দ বোমার্শিজের দিকে এগিয়ে যান। সেখানে দোকানপাটের জানালা গুঁড়িয়ে দেন, বাস স্টেশন ও পুলিশের গাড়িতেও হামলা চালান বিক্ষোভকারীরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ