মঙ্গলবার ০২ জুন ২০২০
Online Edition

অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে সাভার বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচন

সাভার সংবাদদাতা : অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে সাভার বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচন। বহুল আলোচিত বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় প্রার্থীসহ সাধারণ ভোটার ও সাধারণ মানুষের মাঝে কৌতুহল সৃষ্টি হয়েছে। নানা প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হচ্ছে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদের।
জানা গেছে, সাভার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচন উপলক্ষে হাজী আলী আহম্মদ খানকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ করে বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন করার দায়িত্ব দেয়া হয়। এসময় তার সহযোগী কর্মকর্তাদের নিয়ে আলী আহম্মদ খান বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন করার লক্ষ্যে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করেন। আগামী ৩ মে সাভার বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচনে ভোট গ্রহণের তারিখ ঘোষণা করা হয়। এ নির্বাচন উপলক্ষে ২০ এপ্রিল প্রার্থীদের জন্য মনোনয়নপত্র ক্রয়, ২১ এপ্রিল মনোনয়নপত্র জমা, ২২ এপ্রিল মনোনয়নপত্র বাছাই ও আপিল নিষ্পত্তি এবং খসড়া প্রার্থী তালিকা প্রকাশ, ২৩ এপ্রিল মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার, ২৪ এপ্রিল প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্ধ ও  চূড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ ঘোষণা করা হয়।
এ অবস্থায় ২০  এপ্রিল বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচন উপলক্ষে মনোনয়নপত্র বিক্রয়ের দিন ধার্য করা হলে প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র ক্রয় করতে আসে অফিসে। এসময় স্থানীয় কিছু ব্যক্তি প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র ক্রয় করতে বাধা প্রদান করেন। এ ঘটনাটি প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দৃষ্টিগোচরে পড়লে তিনি তাতক্ষণিক নির্বাচন অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত ঘোষণা করেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব থেকে অব্যাহিত নেয়ার সিদ্ধান্ত  গ্রহণ করেন বলে জানা যায়।
এ ব্যাপারে বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির প্রধান নির্বাচন কমিশনার হাজী আলী আহম্মদ খান বলেন, আমরা প্রতিনিয়তই উৎসবমুখর পরিবেশে বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠান আয়োজন করি। এবারও ২০১৭-১৮ বাজার রোড কার্যকরী পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আমাকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ করে। আমার সহযোগী কর্মকর্তাদের নিয়ে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করি। তফসিল ঘোষণা অনুযায়ী ২০ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বিক্রয়ের দিন ধার্য করা হয়। এসময় প্রার্থীরা নির্বাচন অফিসে মনোনয়নপত্র ক্রয়ের জন্য আসলে স্থানীয় ২০/৩০ জনের একটি গ্রুপ এসে প্রার্থীদের মনোনয়পত্র ক্রয় করতে বাধা প্রদান করে। এ অভিযোগের ভিত্তিতে আমি এই নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করতে পারবো না বিধায় নির্বাচন সাময়িক স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি আগামী  রোববার উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর বিষয়টি অবগত করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার পদ থেকে সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে রেখেছি। তিনি যদি সুষ্ঠু নির্বাচন করার অঙ্গীকার দিতে পারে তাহলে আমি এই পদে বহাল থাকবো তা না হলে আমি এখান থেকে অব্যাহতি নিবো।
সাভার বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির বর্তমান সভাপতি ওবায়দুর রহমান অভি বলেন, আমি শুনেছি নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। কি কারণে স্থগিত করা হয়েছে তা আমি জানি না।
স্থগিত হওয়া নির্বাচনের বিষয় নিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশী সাভার প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিঠুন সরকার বলেন, আমি বাজার রোড ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচনে একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী। আমি যখন মনোনয়নপত্র ক্রয় করতে যাই তখন গিয়ে দেখি প্রভাবশালী ব্যক্তিরা অফিস ঘেরাও করে রেখেছে। আমিসহ মনোনয়পত্র ক্রয় করতে আসা প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র ফরম ক্রয় করতে বাধা প্রদানের সম্মুখীন হতে হয়েছে। এ নির্বাচন নিয়ে বর্তমান কমিটির একটি প্রভাবশালী মহল নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন। অতিদ্রুত নির্বাচন স্থগিতাদেশ তুলে নিয়ে নির্বাচন দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ