বৃহস্পতিবার ০২ জুলাই ২০২০
Online Edition

২৩ এপ্রিল চূড়ান্ত পর্বের খেলা ঢাকায় শুরু

স্পোর্টস রিপোর্টার : ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় আগামী  ২৩ এপ্রিল থেকে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে  অনূর্ধ্ব-১৮ জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের চূড়ান্ত পর্বের খেলা। জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপের প্রাথমিক পর্বের খেলা শেষে ৮ দল চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। চূড়ান্ত পর্বের খেলাগুলো বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্টিত হবে।দেশের আটটি ভেন্যু থেকে চূড়ান্ত পর্বে আসা দলগুলো হচ্ছে:  ঢাকা জেলা অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবল দল, বরিশাল জেলা অনূর্ধ্ব-১৮, চট্টগ্রাম জেলা অনূর্ধ্ব-১৮, রংপুর জেলা অনূর্ধ্ব-১৮, রাজশাহী জলা অনূর্ধ্ব-১৮, সাতক্ষীরা জেলা অনূর্ধ্ব-১৮, সিলেট জেলা অনূর্ধ্ব-১৮ ও বিকেএসপি অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবল দল।টুর্নামেন্টের দুটি সেমিফাইনাল হবে ৩০ এপ্রিল। এরপর ফাইনাল হবে ৪ মে।
এ উপলক্ষ্যে গতকাল সোমবার বাফুফে ভবনে পৃষ্টপোষক ওয়ালটনের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। এরপরই আনুষ্টানিকভাবে টুর্নামেন্টের লোগো উন্মোচন হয়। আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যেই চূড়ান্ত পর্বের গ্রুপিং ড্র অনুষ্ঠিত হবে।সংবাদ সম্মেলনে বাফুফের সিনিয়র সহ সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী জানালেন, ‘এই টুর্নামেন্টটি মূলত জেলা পর্যায়ে ফুটবলার বাড়ানোর প্রয়াসের একটি অংশ। এই টুর্নামেন্টের প্রাথমিক পর্যায়ে ৬৪টি জেলা ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। সেখান থেকে চূড়ান্ত পর্বে উঠে এসেছে ৮টি দল। তাদের নিয়েই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে চূড়ান্ত পর্ব।এখান থেকে বের হয়ে আসা ৩০ প্রতিভাবান ফুটবলারকে নিয়ে দীর্ঘ মেয়াদী ক্যাম্প করা হবে বলেও সাংবাদিকদের জানান।
উল্লেখ্য গত ৯ মার্চ থেকে সারাদেশের আটটি জোনে দেশের ৬৪ জেলা, পাঁচটি শিক্ষা বোর্ড, ছয়টি বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিকেএসপির অংশ গ্রহণে টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ড শুরু হয়েছিলো। গ্রুপ পর্বের খেলায় প্রতি দল কমপক্ষে তিনটি করে ম্যাচ খেলে। আট জোনাল চ্যাম্পিয়ন দলগুলোই চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। বাফুফে সহ-সভাপতি ও কম্পিটিশন্স কমিটির চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ মহি জানালেন,ট্রফি ছাড়া ও টুর্নামেন্টে আর্থিক পুরুস্কার রয়েছে। চ্যাম্পিয়ন দল পাবে এক লাখ এবং রানার্সআপ দল পাবে ৫০ হাজার টাকা করে অর্থ পুরস্কার। টুর্নামেন্টের বাজেট প্রায় ৮০ লাখ টাকা।
ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে চূড়ান্তপর্বের সর্বোচ্চ গোলদাতা ও ফাইনালের ম্যাচসেরাকে ৩২ ইঞ্চি ওয়ালটন এলইডি টিভি দিয়ে উৎসাহিত করা হবে। এ ছাড়া প্রত্যেক ম্যাচের ম্যাচসেরাকেও ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে উৎসাহিত করা হবে। এতে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটনের  হেড অব স্পোর্টস এ্যান্ড ওয়েলফেয়ার এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী, বাফুফে সহ-সভাপতি ও কম্পিটিশন্স কমিটির চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, বাফুফে সদস্য ইলিয়াস হোসেন এবং বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ