ঢাকা, শুক্রবার 18 September 2020, ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ মহররম ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

প্রতিরক্ষায় চুক্তি নয়, দুটি সমঝোতা স্মারক

অনলাইন ডেস্ক: ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা দাবী করেছে, বাংলাদেশের সাথে প্রতিরক্ষা চুক্তি নয় বরং দুটি সমঝোতা স্মারকে সাক্ষর করবে ভারত।পত্রিকাটির ভাষায় দ্বিপাক্ষিক চুক্তির ঘণ্টা বাজিয়ে প্রতিবেশীকে সরব সতর্ক করা নয়, বরং সমঝোতা স্মারকের মোড়কে বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে বড় মাপের সমঝোতার পথে হাঁটতে চলেছে ভারত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে দুই দেশের মধ্যে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে দুইটি সমঝোতাপত্র সই হবে বলে নয়াদিল্লির বরাত দিয়ে জানিয়েছে ।

বাংলাদেশকে সমরাস্ত্র কেনার জন্য ৫০ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দেবে ভারত। এর ফলে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার ভূকৌশলগত রাজনীতিতে কিছুটা সুবিধাজনক অবস্থায় পৌঁছনোর আশা করছে নয়াদিল্লি।

মূলত প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে বেজিং-ঢাকা অক্ষ চাপ বাড়িয়েছে নয়াদিল্লির। দীর্ঘদিন আগেই সামরিক সহযোগিতা নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে চীনের চুক্তি হয়েছে। সম্প্রতি বঙ্গোপসাগরের উপকূলবর্তী এলাকায় ভারতীয় সামরিক ঘাঁটিগুলোর উপর নজরদারি এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে দখলদারিত্ব রুখতে বেজিংয়ের সক্রিয়তা বাড়ছে।

এমন প্রেক্ষাপটে শেখ হাসিনার আসন্ন সফরে প্রতিরক্ষা নিয়ে সমঝোতা স্মারকের বিষয়টি তাৎপর্যপূর্ণ। বাংলাদেশের ঘরোয়া রাজনীতিতে ভারতের সঙ্গে সামরিক সহযোগিতা নিয়ে বিরোধিতার ঝড় উঠেছে। ঘরোয়া সমালোচনার প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন যে, তিনি ভারতের সঙ্গে যখন চুক্তি করবেন, সেখানে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা বজায় রেখেই করবেন। দেশবাসীর কাছে কিছুই গোপন রাখবেন না।

সাউথ ব্লকের বাংলাদেশের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্মসচিব শ্রীপ্রিয়া রঙ্গনাথন জানিয়েছেন, মোট দুইটি সমঝোতাপত্রে সই করবে দুদেশ। দুইদেশের মধ্যে চলতি সামরিক সহযোগিতাগুলোকে এক ছাতার তলায় নিয়ে এসে সামগ্রিক ‘ফ্রেমওয়ার্ক’ তৈরি করা। যার মধ্যে রয়েছে সাবমেরিন-প্রশিক্ষণ, তথ্য সহযোগিতা, উপকূলরক্ষীদের মধ্যে সহযোগিতা, সেনাপ্রধান পর্যায়ে আদানপ্রদানের মতো বিষয়। এ ছাড়া ভারত থেকে সমরাস্ত্র এবং সামরিক প্রযুক্তি কেনার জন্য বাংলাদেশকে ৫০ কোটি ডলার ঋণ দেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ