শুক্রবার ২৯ মে ২০২০
Online Edition

ঝালকাঠিতে ২৫ মাদকব্যবসায়ী ও সেবীর আত্মসমর্পণ

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠি পুলিশ সুপার মোঃ জোবায়েদুর রহমান বলেন, “ঝিনাইদহ ও কুষ্টিয়ায় সহকারী পুলিশ সুপারের দায়িত্ব পালন কালে মাদকের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে এ পর্যন্ত এসেছি। ঝালকাঠিকে সবার সহযোগিতা নিয়েই মাদকমুক্ত গড়ে তোলবো। পেশাগতভাবে আমাদের সাথে অপরাধীদের স্বাভাবিক সম্পর্ক থাকলেও অপরাধী হিসেবে তাদের সাথে আমাদের আচরনের পরিবর্তন করতে একটুও সময় লাগে না। তাই সময় থাকতে সাবধান হয়ে যান। মানসম্মান থাকতে মাদকের পৃষ্ঠপোষকতা ছেড়ে দিন। ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক হয়ে যান। নয়তো যেই হাত আপনার হাতের সাথে মিলায় সেই হাত দিয়েই আপনার হাতে একদিন হাতকড়া পড়াবে। তার পূর্বে ঠিক হয়ে যান।” ঝালকাঠিতে পুলিশের উদ্যোগে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীদের মাদক হতে স্বাভাবিক জীবন গড়ার লক্ষ্যে প্রত্যাবর্তন ও পুনর্বাসন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। শুক্রবার বিকেলে সদর থানা চত্ত্বরে থানা পুলিশের আয়োজনে এ অনুষ্ঠানে “২৫ জন মাদক সেবী ও বিক্রেতা আত্মসমর্পন করেন। এদের মধ্যে ১২ জন ব্যবসায়ী ও মাদক মামলার আসামী। অপর ১৩ জনের মধ্যে অস্বচ্ছলতার কারণে ২ জন এবং অন্য ১১ জন অধিক মুনাফার আশায় মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত ছিলেন। অসচ্ছল ২ জনকে যুবউন্নয়ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে গবাদি প্রাণি পালন প্রশিক্ষণ দিয়ে পুনর্বাসন করার প্রক্রিয়া রয়েছে” বলেও জানান পুলিশ সুপার জোবায়েদুর রহমান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ সুলতান হোসেন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মকবুল হোসেন, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আব্দুর রকিব, এমএম মাহমুদ হাসান, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি ও জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান রসুল, চেম্বার অব কমার্স সবাপতি মাহবুব হোসেন, জেলা যুবউন্নয়ন অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোঃ মিজানুর রহমান, উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান ইসরাত জাহান সোনালী, ইউপি চেয়ারম্যান মোবারেক হোসেন মল্লিক প্রমুখ। সুশীল সমাজের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আক্কাস সিকদার। মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আব্বাস উদ্দিন। এ সময় সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সদস্য ও পৌর কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ