শুক্রবার ২৯ মে ২০২০
Online Edition

ডুমুরিয়ায় বোরো ধান ক্ষেত ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত

খুলনা অফিস: খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার বোরো ধান ক্ষেতগুলো হঠাৎ করে ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে। এতে কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে।
এক সপ্তাহ আগেও দেখা গেছে মাঠে বাতাসে দুলছে সবুজের সমরাহ বোরো ধানের ক্ষেত। যে দিকে চোখ যায়, যেন মন মাতানো এক অপরূপ দৃশ্য। আর মাত্র ১৫ থেকে ২০ দিন পর কৃষক-কৃষাণীরা তাদের মাঠের সোনালী ধান নিয়ে আঙ্গিনায় ফেরার পালা।
কৃষকদের বাড়িতে বাড়িতে চলার কথা ধান মাড়ায়ের প্রতিযোগিতা। কৃষকদের সকল আশা-ভরসা-আনন্দ বিলীন করে দিয়েছে ‘ব্লাস্ট রোগে’। কৃষকদের অফুরন্ত ক্ষতি পুশিয়ে নেয়ার কোন সুযোগ নেই।
ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি অফিস জানিয়েছে, এ উপজেলা এবার লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ২০ হাজার ৬শ’ ১০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষের আবাদ করা হয়। হঠাৎ কয়েকদিনের মধ্যে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ৭২ হেক্টর বোরো ধান ক্ষেতে ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়েছে।
উপজেলার খর্ণিয়া ইউনিয়নের টিপনা গ্রামের কৃষক জিয়াউর রহমান গাজী, ডুমুরিয়া সদর ইউনিয়নের খলশি গ্রামের কৃষক মাসুদ রানা শান্ত এবং মাগুরাঘোনা ইউনিয়নের বাদুড়িয়া গ্রামে জাহাঙ্গীর সরদার জানান, এতদিন আবহাওয়া অনুকূলে ছিলো।
এবার শিলা বৃষ্টি হয়নি, পর্যাপ্ত সেচ সুবিধা পাওয়া গেছে, বীজ ও সারের সংকট ছিলো না। এমনকি এবার বীজতলা নিয়ে কোন সমস্যয় পড়তে হয়নি। তারা (কৃষক) নিয়মিত প্রশিক্ষণ পাওয়া গেছে। কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাদের নিয়মিত মাঠ পরিদর্শনে কোন কমতি ছিলো না।
কিন্তু কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই হঠাৎ কয়েকদিনের মধ্যে উপজেলার ১৪ ইউনিয়নে কয়েক হাজার হেক্টর বোরো ধান ক্ষেতে ‘ব্লাস্ট’ রোগে আক্রান্ত হয়ে ফুলান্ত বোরো ক্ষেত বিনষ্ট করে ফেলেছে। অফুরান্ত এ ক্ষতি পুশিয়ে নেয়ার মত কোন সুযোগ নেই। ধার দেনা আর জামির মালিককে হারি (ভাড়া) পরিশোধ করতে হিমশিম খেতে হবে বলে কৃষকরা জানান।
ডুমুরিয়া সদর ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামের কৃষক পশুপতি জানান, তিনি ৪ বিঘা জমিতে এবার বোরো আবাদ করেছিলেন। প্রতি বিঘা জমিতে বোরো আবাদ করতে তার খরচ হয়েছিলো প্রায় ১৮ হাজার টাকা। প্রতি বিঘায় ফলন আশা করেছিলেন ৪০ মণ ধান। যার বর্তমান বাজার মূল্য ৪৪ হাজার টাকা। তবে ব্লাস্ট রোগে সব আশা নিরাশ করে দিয়েছে।
ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. নজরুল ইসলাম জানান, সম্প্রতি আবহওয়া ভাল যাচ্ছে না। কখনো শীত আবার কখনো প্রচণ্ড-গরম এ কারণে চলতি বোরো মওসুমে ধান ক্ষেতে ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়েছে। এ রোগে ধান গাছের পাতা, ধানের শীষ ও গাছের ঘাড়ে আক্রমণে পুরা ক্ষেত বিনষ্ট করে।
তবে এ রোগ প্রতিহত করার লক্ষ্যে মাঠে কাজ করা হচ্ছে এবং প্রতিনিয়ত কৃষকদের কাছে যেয়ে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ