বৃহস্পতিবার ০৬ আগস্ট ২০২০
Online Edition

অধিকৃত পশ্চিম তীরে অবৈধ বসতি স্থাপনের বিরুদ্ধে কড়া নিন্দা জানাল ইইউ

১ এপ্রিল, পার্সটুডে : গত ২০ বছরের মধ্যে অধিকৃত জর্ডান নদীর পশ্চিম তীরে ইহুদিবাদী ইসরাইল প্রথমবারের মতো অবৈধ বসতিস্থাপন অনুমোদন দিয়েছে। আর তেল আবিবের এ পদক্ষেপের বিরুদ্ধে বেশিরভাগ ইউরোপীয় সরকারগুলো কড়া নিন্দা জানিয়েছে।
ইসরাইলের মন্ত্রীপরিষদ সর্বসম্মতভাবে ফিলিস্তিনের রামাল্লাহ শহরের কাছে বসতিস্থাপনের পক্ষে ভোট দিয়েছে। গত বুধবার আরব লীগ অধিকৃত ফিলিস্তিন ভূখ- থেকে অবৈধ ইসরাইলি বসতিস্থাপন সরিয়ে নেয়ার পাশাপাশি পুর্ব জেরুজালেম আল কুদসকে রাজধানী রেখে একটি স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের জন্য আহ্বান জানিয়েছিল।
গত শুক্রবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরাইলের নতুন বসতিস্থাপনের পরিকল্পণাকে আন্তর্জাতিক আইনের সম্পূর্ণ-বিরোধী হিসেবে আখ্যায়িত করে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন জোর দিয়ে বলেন, এটি ফিলিস্তিনি-ইসরাইল সংকট নিরসনের লক্ষ্যে সম্ভাব্য দুই-রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান প্রক্রিয়াকে হুমকির মধ্যে ফেলবে।
তিনি বলেন, এ ধরনের পদক্ষেপের প্রতি অগ্রসর না হতে আমি  ইসরাইলের প্রতি আহ্বান জোরালো আহ্বান জানাচ্ছি। জনসন বলেন, তেল আবিব  তাদের এ পরিকল্পণা বাস্তবায়ন করলে সেখানে শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার অভিন্ন লক্ষ্য থেকে আমরা ছিটকে পড়ব এবং এর ফলে ইসরাইল এবং আরব দেশগুলোর মধ্যে ভিন্ন মাত্রার সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করা কঠিন হয়ে পড়বে। এদিকে, ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আলাদা বিবৃতিতে বলেছে, ইসরাইলের বসতিস্থাপনের ঘোষণা চরম উদ্বেগজনক। মন্ত্রণালয়টি আরো বলেছে, আমরা তেল আবিবের এই সিদ্ধান্তের কড়া নিন্দা জানাচ্ছি। বসতিস্থাপন শান্তি প্রক্রিয়াকে বানচাল করার পাশাপাশি মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনার মাত্রাকেও বাড়িয়ে দেবে বলে জানায় মন্ত্রণালয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ