বৃহস্পতিবার ০৬ আগস্ট ২০২০
Online Edition

দালাইলামা অরুণাচল সফর নিয়ে ফের চীনের হুমকি

১ এপ্রিল, এনডিটিভ : এক মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মত ভারতকে চীন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, তিব্বতের ধর্মীয় নেতা দালাইলামা যদি অরুণাচল প্রদেশ সফরে যায় তাহলে দুটি দেশের মধ্যে সম্পর্কে তা মারাত্মক ক্ষতি বয়ে আনবে। একই সঙ্গে চীন নয়াদিল্লিকে তিব্বত ইস্যুতে চীনের সঙ্গে করা রাজনৈতিক অঙ্গীকার অক্ষুণ্ন রাখার আহবান জানিয়েছে।
চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লু ক্যাং বলেছেন, দালাইলামার ভারতের অরুণাচল প্রদেশ সফর নিয়ে চীন গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। চীন-ভারত সীমান্তের পূর্বাঞ্চল নিয়ে দেশটির অবস্থান পরিষ্কার ও অটল বলে লু বলেন, অরুণাচল প্রদেশ দক্ষিণ তিব্বতের অংশ।
লু আরো বলেন, দালাইলামা গোষ্ঠী দীর্ঘদিন ধরে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে জড়িত এবং এর গৌরবহীন প্রমাণ রয়েছে। এখন ভারতের উচিত এক্ষেত্রে দালাইলামাদের ব্যাপারে অবস্থান পরিষ্কার করা। কিন্তু তা সত্ত্বেও দালাইলামাকে ভারত অরুণাচল প্রদেশ ভ্রমণে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। যা চীনের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ককে মারাত্মকভাবে বিঘিœত করবে।
আগামী ৪ থেকে ১৩ এপ্রিল দালাইলামার অরুণাচল সফরের কথা রয়েছে।
এর আগে গত ৩ মার্চ চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আরেক মুখপাত্র জেং শুয়াং বলেন, গভীরভাবে উদ্বিগ্ন এ কারণে যে ভারত দালাইলামাকে অরুণাচল প্রদেশে ভ্রমণের অনুমতি দিয়েছে। গত বছর যখন দালাইলামা যখন অরুণাচলে সফরের কথা জানান তখন চীন তীব্র প্রতিবাদ জানায়। জেং বলেন, এধরনের সফর চীন ও ভারতের সম্পর্কে গভীর ক্ষত সৃষ্টি করবে। আমরা ভারতকে এ ব্যাপারে তার রাজনৈতিক অঙ্গীকার রক্ষা ও দুটি দেশের সম্পর্ককে আঘাত না করার আহবান জানাচ্ছি। ভারত তা না করলে বিষয়টি দেশটির ভাবমূর্তি বিনষ্ট করবে।
জেং আরো বলেন, অরুণাচল প্রদেশে দালাইলামা সফর করুক বা কোনো তৎপরতা চালান, চীন তার দৃঢ় বিরোধিতা করে এবং ভারতকে এ উদ্বেগের কথা জানানো হয়েছে। আমরা ভারতকে আহবান জানাই রাজনৈতিক অঙ্গীকারের প্রতি দেশটি অবিচল থাকবে, ঐক্যকে সম্মান জানাবে এবং এমন কোনো কিছু করবে না যা পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলবে।
গত বছর চীন অরুণাচলে মার্কিন রাষ্ট্রদূত রিচার্ড ভার্মার সফরের তীব্র প্রতিবাদ জানায়। অরুণাচলে নিয়ন্ত্রণ রেখায় ৩ হাজার ৪৮৮ কিলোমিটার এলাকা নিয়ে চীনের সঙ্গে ভারতের বিবাদ দীর্ঘদিনের। একদিকে চীন অরুণাচলকে দক্ষিণ তিব্বতের অংশ হিসেবে দাবি করলেও ভারত বলে আসছে বিতর্কিত আকসাই চীন এলাকা ১৯৬২ সালের যুদ্ধে চীন দখল করে নেয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ