সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২
Online Edition

বুরহানের মৃত্যুতে কাশ্মীরে স্বাধীনতাকামীদের সংগঠনে নাম লেখানোর হিড়িক

২২ মার্চ, ইন্টারনেট : ২০১৬ সালের ৮ জুলাই হিজবুল মুজাহিদিনের শীর্ষ নেতা বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর পর কাশ্মীর উপত্যকায় স্বাধীনতাকামীদের সংগঠনে নাম লেখানোর হিড়িক পড়েছে।
২০১৬ সালে জম্মু-কাশ্মীরে বিভিন্ন স্বাধীনতাকামীদের সংগঠনে নাম লিখিয়েছে অন্তত ৮৮ জন যুবক। গত মঙ্গলবার ভারতের লোকসভায় এমন তথ্য পেশ করা হয়েছে।
২০১৪ সালের পর থেকে কাশ্মীর উপত্যকায় ক্রমেই কমে আসছিল তরুণদের স্বাধীনতাকামীদের সংগঠনে যোগ দেয়ার ধুম। তবে বুরহানের মৃত্যু এই চিত্রটা বদলে দেয়। ২০১০ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে স্বাধীনতাকামীদের সংগঠনে নতুন নিয়োগের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৫৫ শতাংশ।
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হংসরাজ গঙ্গারাম আহির লিখিত বক্তব্যে লোকসভাকে জানিয়েছেন, ‘গত বছর যেখানে স্বাধীনতাকামীদের সংগঠনে নাম লেখান উপত্যকার ৮৮ জন যুবক, সেখানে ২০১৫ সালে সংখ্যা ছিল ৬৬, ২০১৪ সালে ছিল ৫৩, ২০১৩ সালে মাত্র ১৩, ২০১২-তে ২১ জন, ২০১১-তে ২৩ এবং ২০১০-এ ৫৪। শুধুমাত্র স্বাধীনতাকামীদের সংগঠনে যোগ দেয়ার ঘটনাই নয়, ওয়ানির মৃত্যুর পর কাশ্মীরে বেড়ে গেছে নানা আইনি সমস্যাও। ২০১৬ সালের জুলাই মাসেই প্রায় ৮২০টি অপ্রিয় ঘটনা ঘটে সেখানে। অগস্টে সেই সংখ্যা ছিল ৭৪৭ এবং সেপ্টেম্বরে ৫৩৫।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ