মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ ফুটবল নেপালে

স্পোর্টস রিপোর্টার: দক্ষিণ এশিয়ান অনুর্ধ্ব - ১৫ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা আগষ্টে নেপালে অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে।  সাফ ফুটবলে সিনিয়রদের টুর্নামেন্ট নিয়মিত না হলেও বয়স ভিত্তিকগুলো ঠিকঠাক মতোই মাঠে গড়ায়।  ২০১১ সালে অনূর্ধ্ব-১৬ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ চালু হওয়ার পর দুই বছর অন্তরই হয়ে আসছে।  এ টুর্নামেন্ট নিয়ে বাংলাদেশের স্মৃতিটা উজ্জ্বল-সর্বশেষ আসরের সেরা যে লাল-সবুজের দেশ।  ২০১৫ সালে সিলেটে অনুষ্ঠিত ছোটদের সাফের ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে এ অঞ্চলের ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পড়েছিল বাংলাদেশের কিশোররা।  এই বছরই বাংলাদেশের সামনে সে শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ।  এবার দেশে নয়, বিদেশের মাটিতে।
আগামী আগস্টে টুর্নামেন্টের চতুর্থ আসর বসতে যাচ্ছে নেপালে।  প্রথমে আয়োজক হিসেবে শ্রীলংকার কথা শোনা গেলেও গতকাল মঙ্গলবার সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনর (সাফ) সেক্রেটারি আনোয়ারুল হক হেলাল জানিয়েছেন, খেলা হবে নেপালে।  এখন থেকে অনূর্ধ্ব-১৬ এর পরিবর্তে টুর্নামেন্ট হবে অনূর্ধ্ব-১৫।  ‘এএফসির গাইডলাইন অনুযায়ী আমরা দুটি টুর্নামেন্টের বয়সে পরিবর্তন এনেছি।  আগামীতে দক্ষিণ এশিয়ার দুটি বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্ট হবে অনুধ্ব-১৫ ও অনূর্ধ্ব-১৮।  দ্বিতীয়টি আগে হতো অনূর্ধ্ব-১৯ নামে। ’ অনূর্ধ্ব-১৫ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ভেন্যু ঠিকঠাক হলেও হয়নি অনূর্ধ্ব-১৯ এর।  তবে সেপ্টেম্বরে এ টুর্নামেন্ট হবে বলে নিশ্চয়তা দিয়েছেন সাফ সেক্রেটারি।  যদিও এ অঞ্চলের ফুটবলের বড় একটা সমস্যার কথা উল্লেখ করে আনোয়ারুল হক হেলাল বলেছেন,‘এখানে টুর্নামেন্ট করতে গেলে অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়।  এক দেশ খেলতে চায়তো, আরেক দেশ বলে পিছিয়ে দাও।  একমাত্র ভারত ছাড়া অন্য দেশগুলোর ফুটবল কাঠামো এখনো দূর্বল।  আমার চোখে বিশ্বে যতগুলো আঞ্চলিক ফুটবল সংস্থা আছে তার মধ্যে বেশি দূর্বল সাফ। ’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ