শনিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২০
Online Edition

দৌলতপুরে ম্যাচ ফ্যাক্টরীর শ্রমিক সর্দারকে হত্যা

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বজলু (৩৬) নামে ম্যাচ ফ্যাক্টরীর এক শ্রমিক সর্দারকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার সকালে কুষ্টিয়া হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। নিহতের পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার আল্লারদর্গা চামনাই গ্রামের খোদাবক্সের ছেলে বায়জীদ ম্যাচ ফ্যাক্টরীর শ্রমিক সর্দার বজলু রোববার বিকেলে থেকে নিখোঁজ হয়। গতকাল সকালে চামনাই মাঠের মধ্যে একটি তামাক ক্ষেতের ভিতর বজলুকে হাত-পা বাঁধা মুমুর্ষ অবস্থায় দেখতে পেয়ে মাঠের লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নেয়। হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক বজলুকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করলে সকাল ১০টার দিকে সে মারা যায়। নিহত বজলুর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে। দূবৃর্ত্তরা তাকে অপহরণের পর হাত-পা বেঁধে বেধড়ক মারপিট করে মৃত ভেবে তামাক ক্ষেতের ভিতর ফেলে রাখে। বজলু হত্যার বিষয়ে দৌলতপুর থানার ওসি আহমেদ কবীর হোসেন জানান, ফ্যাক্টরীর শ্রমিকদের সাথে বজলুর বিরোধ ছিল। বিরোধের জের ধরে অথবা বজলুর মেয়ের সাথে এক ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল, সে সম্পর্কের কারণে বজলু ওই ছেলেকে গালমন্দ করে। এর জের ধরেও তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। হত্যার রহস্য উদঘাটন হলে পরে জানানো হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ