শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

দাগনভূঞায় জমি বিরোধের জের ধরে বসতঘরে হামলার অভিযোগ

ফেনী সংবাদদাতা : ফেনীর দাগনভূঞায় বসত বাড়ীর বিরোধীয় সম্পত্তি দখল চেষ্টা ও বসত ঘরে হামলার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার বিকালে উপজেলার সদর ইউপির দক্ষিণ করিমপুর গ্রামের মুহুরী বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। 
পুলিশ জানিয়েছে, দাগনভূঞা আতাতুর্ক স্কুল মার্কেটের মেসার্স অভিলাস ফ্যাশনের স্বত্বাধিকারী আবু সুফিয়ানের সঙ্গে একই বাড়ীর আবদুর রহিমদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। সম্প্রতি ওইসব বিরোধীয় জমির পরিমাপ চলছে। এ অবস্থায় ওইদিন বিকেলে রহিম গংরা প্রতিপক্ষের বসত ঘরে হামলা চালায় এবং আতংক সৃষ্টির চেষ্টা করে। এ ঘটনায় আবু সুফিয়ানের ভাই কবির আহত হয়েছে। পরে সুফিয়ানের মৌখিক অভিযোগে পুলিশের এএসআই ইমাম উদ্দিন সরেজমিনে গিয়ে প্রতিপক্ষের হাছান নামের একজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরে অবশ্য স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার লাভলুর জিম্মায় তাকে ছেড়ে দেয়া হয় বলে জানায় পুলিশ।
দাগনভূঞা থানার ওসি মো: আসলাম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিক পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। মামলা করলে আইনানুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।
জুয়াড়ির কারাদন্ড
ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার সোনাপুর বাজার থেকে শনিবার রাতে গ্রেফতারকৃত ৬ জুয়াড়িকে ১৫ দিন করে কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
পুলিশ জানায়, ওই দিন রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ আমিরাবাদ ইউনিয়নের সোনাপুর বাজারে অভিযান চালিয়ে জুয়ার আসর থেকে জুয়া খেলার সামগ্রী সহ চর সোনাপুর গ্রামের জমির আলী (২৬), সাহাব উদ্দিন (৩০), নুর আলম (২১), সোহেল (২৮), আতা উল্যাহ (২২) পৌর এলাকার মধ্যেম তুলাতলি গ্রামের আবদুর রহিম (৩০) সহ ৬ জুয়াড়িকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। আটককৃত জুয়াড়ীদেরকে গত রবিবার দুপুরে পুলিশ ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করে। আদালতের বিচারক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: মিনহাজুর রহমান প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ৬ জুয়াড়ীকে ১৫ দিন করে কারাদন্ড প্রদান করেন।
সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মো: হুমায়ুন কবীর জানান, দন্ডপ্রাপ্ত ৬ জুয়াড়ীকে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ