সোমবার ০১ জুন ২০২০
Online Edition

নির্দিষ্ট বই ও সিলেবাসের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে শিশুদের দিতে হবে আধুনিক ও প্রযুক্তিগত শিক্ষা

খুলনা অফিস : খুলনা মহানগরীর শেখপাড়াস্থ আন্তরিক লাইফ প্রিপারেটরী স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, নির্দিষ্ট বই ও সিলেবাসের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে শিশুদের প্রতিভা বিকাশে আধুনিক ও প্রযুক্তিগত শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। মানসম্মত শিক্ষার প্রতি কোমলমতি শিশুদের প্রথম থেকেই গুরুত্ব দেয়ার আহবান জানিয়ে বক্তারা বলেন, এজন্য কিন্ডার গার্টেনগুলোই মূল ভূমিকা রাখতে পারে। আন্তরিক স্কুলের ন্যায় অন্যান্য কিন্ডার গার্টেনগুলোকেও আধুনিক ও ধর্মীয় শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দেয়ার আহবান জানান বক্তারা। শুক্রবার সকালে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও বিকেলে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, যথাক্রমে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান ও খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য মিজানুর রহমান মিজান।
নগরীর গোবরচাকাস্থ পল্লীমঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দু’টি অধিবেশনেই সভাপতিত্ব করেন, আন্তরিক স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ডা. জাকিরুল ইসলাম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, কেসিসির ১৯নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আশফাকুর রহমান কাকন, খুলনা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ, পল্লী মঙ্গল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মো. রফিকুল ইসলাম ও খুলনা প্রেসক্লাবের সাবেক কোষাধ্যক্ষ এইচ এম আলাউদ্দিন।
পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কেসিসির সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মাহমুদা বেগম, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মোতালেব মিয়া, পল্লীমঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম বাবু ও খুলনা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র পরিচালক মফিদুল ইসলাম টুটুল।
স্কুলের শিক্ষক মো. তারেক নাসরুল্লাহর পরিচালনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন, আন্তরিক কালচারাল একাডেমীর পরিচালক বদরুজ্জামান নাবিল। দিনব্যাপী স্কুলের শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রতিযোগিতা শেষে সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া আন্তরিক কালচারাল একাডেমির পক্ষ থেকে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অন্যরকম পরিবেশ আনে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ