সোমবার ০১ জুন ২০২০
Online Edition

রাজনৈতিক অচলাবস্থা দূরীকরণে সরকারকেই দায়িত্ব নিতে হবে -ড. মঈন খান

গতকাল শনিবার ভাসানী মিলনায়তনে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১১তম কারাবন্দী দিবস উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : আলোচনার মাধ্যমে দেশের রাজনৈতিক অচলাবস্থা নিরসনে সরকারকেই দায়িত্ব নিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান। অন্যথায়, ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করে আন্দোলনে নামার ঘোষণা দেন তিনি। গতকাল শনিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে ভাসানী মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১১ তম কারাবন্দী দিবস উপলক্ষে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
মহিলাদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তৃতা করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, মহিলা দল নেত্রী হেলেন জেরিন খান, জেবা খান প্রমুখ।
সম্প্রতি আওয়ামী লীগ প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন চায়না ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের এমন বক্তব্য তুলে ধরে মঈন খান বলেন, তাদের এসব বক্তব্যই প্রমাণ করে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ ছিল। এখন তারা আরও একটি একতরফা নির্বাচন করে ক্ষমতায় থাকতে চায়। কিন্তু জনগণ সেটি এবার হতে দিবেনা।
খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আমরা সংগ্রাম করে যাবো এমন মন্তব্য করে মঈন খান বলেন, বৃটিশ আমল থেকে এদেশের রাজপথ বার বার রঞ্জিত হয়েছে। প্রয়োজনে আগামীতে আবার হবে। এদেশের মানুষের ভোটের স্বাধীনতা আমরা আদায় করে ছাড়বো। সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বিরোধী দল সরকারি দল একসঙ্গে আলোচনার টেবিলে বসে দেশের রাজনৈতিক অচলাবস্থা দূর করে মানুষের ভোটের অধিকার সেটাকে ফিরিয়ে দিই। মানুষ যাদেরকে ভোট দেয় তারা দেশ পরিচালনা করবে। যদি সরকার এটা না করে তাহলে তার দায়ভার তাদেরই বহন করতে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ