শনিবার ০৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত-১

মহেশখালী (কক্সবাজার) সংবাদদাতা: মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়নের উত্তর ঝাপুয়া গ্রামে মৎস্য ও লবন মাঠের জমি দখল বে-দখলকে কেন্দ্র করে দু‘পক্ষের সংঘর্ষে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। ৮ মার্চ বিকালে উত্তর ঝাপুয়া দলিলুর রহমানের ঘোনা নামক প্রজেক্টে এ ঘটনা ঘটেছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের জানান, ২০ বছর আগে স্থানীয় উত্তর ঝাপুয়া এলাকার মৃত আব্দুর রশিদের পুত্র দলিলুর রহমান জাইল্যা ঘোনার বাইরে একটি চর ঘেরাও করে সরকারের নিকট থেকে দীর্ঘমেয়াদী লীজ নিয়ে মৎস্য চাষ করে আসছিল। সেই থেকে উক্ত ঘোনার নাম দলিলুর রহমানের ঘোনা নামে পরিচিতি লাভ করে। ১৭ বছর আগে দুর্বৃত্তদের হাতে দলিলুর রহমান নিহত হলে তার ছেলেরা তা ভোগদখল করে মৎস্য চাষ করে আসছিল। কিন্তু লোভের বশীভূত হয়ে দলিলুর রহমানের সৎ ভাই আব্দুল মালেক দলিলুর রহমানের ছেলেদের উক্ত ঘোনা থেকে বার বার উচ্ছেদের চেষ্টা করে আসছিল। সেই থেকে আব্দূল মালেকের ছেলেরা মৃত দলিলুর রহমানের ছেলেদের মারধর করে বেশ কয়েকবার উচ্ছেদ করে। কিন্তু মৃত দলিলুর রহমানের ছেলেরা প্রশাসনের মাধ্যমে তা ফিরে পায় এবং উক্ত ঘোনা ভোগ দখলে আছে। পরধন লোভী আব্দুল মালেক কিছু দিন আগে গোরকঘাটার কিছু প্রভাবশালী লোকের মাধ্যমে জোর দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছে। তারই অংশ হিসাবে ৮মার্চ সকাল ১১ ঘটিকার সময় কালারমারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির মাধ্যমে আব্দুল মালেক ঘোনা দখলে যায়। কিন্তু বিকাল ৩ ঘটিকার সময় মৃত দলিলুর রহমানের ছেলে আনজুমান লবন মাঠে কাজ করতে গেলে মাঠে নামা মাত্র নিহত জয়নাল তাকে মারধর করতে থাকলে দুরে কাজ করতে থাকা দলিলুর রহমানের অন্যান্য ছেলেরা দৌড়ে গেলে ঘটনার সুত্রপাত হয়। এ সময় দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হলে নিহত জয়নাল গুরুতর আহত হয়। তাকে দ্রুত চকরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করালে বিকাল ৪ টার দিকে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ব্যাপারে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার দাশ জানান, জয়নাল নামের একজন নিহতের খবর শুনেছি, তবে বিস্তারিত জানা যায়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ