শনিবার ০৪ জুলাই ২০২০
Online Edition

পদ্মায় স্পিডবোট উল্টে জাজিরা বিএনপির সভাপতি নিখোঁজ

শরীয়তপুর সংবাদদাতা: পদ্মায় স্পীডবোর্ড উল্টে যাওয়ার ঘটনায় শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলা বিএনপির সভাপতি এখনো নিখোজ রয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে ইকবালের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতম। আশে পার্শ্বের শত শত লোকজনসহ রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা  ইকবালের বাড়িতে এসে ভিড় জমাচ্ছে। গতবৃহস্পতিবার সকাল থেকে স্বজনরা নৌকা ট্রলার নিয়ে মাওয়াঘাট থেকে শুরু করে সুরেশ্বর পর্যন্ত পদ্মার বিভিন্ন স্থানে খুজে তার কোন সন্ধান পায়নি।
জাজিরা থানা, মঙ্গলমাঝিরঘাট ও ইকবালের স্বজনদের সুত্রে জানাগেছে, শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলা বিএনপির সভাপতি সিকদার ইকবাল মাহমুদ গতকাল বুধবার দুপুরে ঢাকা থেকে বাড়ি যাওয়ার জন্য রওয়ানা হয়। পরে তিনি পদ্মা নদী পাড় হওয়ার জন্য মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ফেরী ঘাট থেকে জনৈক মালেক মাঝির স্পীড বোডের চালক আবদুল হালিম শরীয়তপুরের মাঝির ঘাটের উদ্ধেশ্যে রওয়ানা দেয়। পথিমধ্যে ঝড়ের কবলে পড়ে স্পীড বোর্ডটি উল্টে ২০ জন যাত্রী নিয়ে পদ্মায় ডুবে যায়। এদের মধ্যে অনেক যাত্রী সাতরে তীরে উঠতে পারলে জাজিরা উপজেলা বিএনপির সভাপতি সিকদার ইকবাল মাহমুদ নিখোজ হয়ে যায়। ইকবািল সিকদারের নিখোজ সংবাদ পাওয়ার পর থেকে স্ত্রী পুতুল বেগম ,মা রহিমা সহ বোনেরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে। তাদের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। এদিকে আশে পাশ্বের শত শত লোকজনসহ রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা ইকবাল সিকদারের বাড়িতে এসে ভিড় জমাচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সবজনদের পাশাপাশি রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও এলাকার অনেক লোকজন অর্ধ শতাধিক নৌকা ট্রলার নিয়ে ইকবালের খোজে পদ্মা নদীর মাওয়া ঘাট থেকে শুরু করে ভাটিতে সুরেশ্বর পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে খোজাখুজি করে বৃহস্পতিবার সন্ধা পর্যন্ত তাকে কোথাও পাওয়া যায়নি। নিখোজ ইকবাল সিকদার তিন সন্তানের জনক। বড় মেয়ে ইশাত, মেঝ মেয়ে বেনজির ও ৪ মাসের শিশু পূত্র আলী ইনজাম।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ