সোমবার ০৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ডি ভিলিয়ার্স

সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকা ৩-২ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে। প্রোটিয়াদের সিরিজ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। তিনি ব্যাট হাতে ২৬২ রান করেন। যার গড় ছিল ৮৭.৩৩। যেখানে তার দুটি হাফ সেঞ্চুরি ছিল। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এমন পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স। আইসিসির সদ্য প্রকাশিত র‌্যাংকিং অস্ট্রেলিয়ার ডেভিড ওয়ার্নারকে পেছেন ফেলে ওয়ানডের ব্যাটসম্যানদের তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছেন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষের সিরিজে তিনি ভালো রেটিং পয়েন্ট পান। তাতে তার মোট রেটিং পয়েন্ট হয়েছে ৮৭৫। আর ওয়ার্নারের রেটিং পয়েন্ট ৮৭১। ৮৫২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছেন বিরাট কোহলি। এ নিয়ে দশমবারের মতো ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে উঠলেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। ২০১০ সালে তিনি প্রথম উঠেছিলেন শীর্ষে। এরপর এ পর্যন্ত ৯বার শীর্ষস্থানটি দখলে নিয়েছেন। ৩৩ বছর বয়সী এই তারকা ক্রিকেটার ২০০৯ সালের পর থেকে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরা পাঁচের বাইরে যাননি। এদিকে ওয়ানডে বোলারদের তালিকায় শীর্ষে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ইমরান তাহির। তার রেটিং পয়েন্ট ৭৫০। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সুনীল নারিনের চেয়ে ৫০ রেটিং পয়েন্ট এগিয়ে রয়েছেন তাহির। নারিনের রেটিং পয়েন্ট ৭০০। আরেক প্রোটিয়া বোলার কাগিসু রাবাদা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৮ উইকেট নিয়ে র‌্যাঙ্কিং দারুণ উন্নতি করেছেন। উঠে এসেছেন শীর্ষ পাঁচে। তার রেটিং পয়েন্ট ৬৮৬। পাঁচে উঠতে তিনি পেছনে ফেলেছেন অস্ট্রেলিয়ার জস হাজলেউডকে। অসি পেসারের রেটিং পয়েন্ট ৬৮৪। এদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর দক্ষিণ আফ্রিকা ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে অবস্থান নিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে ১ রেটিং পয়েন্ট এগিয়ে থেকে শীর্ষে রয়েছে তারা। অস্ট্রেলিয়ার রেটিং পয়েন্ট ১১৮। -ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ