শুক্রবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২০
Online Edition

আটকে পড়া ১১ মালয়েশীয়র মধ্যে দু’জনের উত্তর কোরিয়া ত্যাগ

৯ মার্চ, রয়টার্স : দেশত্যাগে সরকারি নিষেধাজ্ঞার কারণে উত্তর কোরিয়ায় মালয়েশিয়ার যে ১১ নাগরিক আটকা পড়েছিলেন তাদের মধ্যে দুজন দেশটি ছেড়ে এসেছেন। উত্তর কোরিয়া ছেড়ে আসা ওই দুই মালয়েশীয় জাতিসংঘের কর্মচারী বলে গতকাল বৃহস্পতিবার জানিয়েছে মালয়েশিয়ার সরকারি একটি সূত্র। ওই দুজন জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) কর্মী বলে জানিয়েছেন মালয়েশীয় সূত্রটি। তবে তারা কীভাবে উত্তর কোরিয়া ছেড়ে এসেছেন তা বিস্তারিত জানাননি। উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সৎভাই কিম জং ন্যামের হত্যাকাণ্ডকে কেন্দ্রে করে সম্প্রতি মালয়েশিয়া ও উত্তর কোরিয়ার কূটনৈতিক সম্পর্কের অবনতি ঘটেছে। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ন্যামকে কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে বিষাক্ত রাসায়নিক ভিক্স নার্ভ এজেন্ট প্রয়োগে হত্যা করা হয়। জাতিসংঘের নিষিদ্ধ গণবিধ্বংসী অস্ত্রের তালিকায় এই রাসায়নিকটির নাম আছে। এ ঘটনার জন্য মালয়েশিয়া সরাসরি উত্তর কোরিয়াকে দায়ী করেনি, কিন্তু এ ঘটনার জন্য উত্তর কোরিয়াই দায়ী বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া। এ ঘটনায় নিজেদের দায় জোরালোভাবে অস্বীকার করেছে উত্তর কোরিয়া। কিন্তু ন্যামের হত্যা ও তার মৃতদেহের দাবি নিয়ে গত দুই সপ্তাহে মালয়েশিয়ার সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সম্পর্ক ক্রমাগতভাবে নাজুক হয়ে উঠেছে। ন্যামের হত্যাকাণ্ডকে কেন্দ্রে করে বাড়তে থাকা বিরোধের জেরে মঙ্গলবার পরস্পরের নাগরিকদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে উত্তর কোরিয়া ও মালয়েশিয়া। এতে মালয়েশিয়ার ১১ নাগরিক উত্তর কোরিয়ায় ও উত্তর কোরিয়ার হাজার খানেক নাগরিক মালয়েশিয়ায় আটকা পড়ে। শিত নথিতে দেখা গেছে, তারাও বিষয়টি খতিয়ে দেখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ