ঢাকা, বৃহস্পতিবার 16 July 2020, ১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

বরিশালে ঝড়ে নিহত ১, আহত ১৫ শিশু

অনলাইন ডেস্ক: বরিশালে কালবৈশাখী ঝড়ে বজ্রপাতে মলিনা গাইন (৩৫) নামে এক গৃহবধু নিহত হয়েছেন। এছাড়া ঝড়ের সময় মক্তবের চালা ভেঙ্গে ১৫ শিশু আহত হয়েছে। রবিবার (৫ মার্চ) বিকেল ৪টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

শ্রীপুর ইউনিয়নের মেম্বর মাহমুদ মিয়া জানান, হঠাৎ করে কাল বৈশাখী ঝড়ের কারণে দমকা বাতাস ও বৃষ্টি শুরু হয়। এ সময় জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুরে মাঈনুদ্দিন মল্লিকের বাড়ির মক্তবে শিশুরা আরবি শিক্ষা পড়ছিল। দমকা বাতাসে মক্তবের চালা ভেঙ্গে পড়ায় ১৫ শিশু আহত হয়েছে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে। তবে কারো অবস্থা গুরুতর নয়।

তিনি আরও জানান, এ সময় শ্রীপুর বাজারে নবীন মাঝি, জাকির হোসেন, মাহাতাব মেম্বার ও অন্যদের মিলিয়ে ৮/১০টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ঝড়ে চল্লিশটিরও বেশি ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে।

এ ঘটনায় মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার কাজী মো. আলীমুল্লাহ জানান, তিনি ঘটনা শুনেছেন এবং ঘটনাস্থলে রওয়ানা দিবেন। স্থানীয় চেয়ারম্যানকে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণের জন্য বলেছেন।

এদিকে জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার বাহাদুপুর গ্রামে মলিনা গাইন নামে এক গৃহবধু বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন। তিনি ওই গ্রামের পরেশ গাইনের স্ত্রী।

আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কেএম শফিক বলেন, বিকেল ৫টার দিকে মলিনা গাইনকে স্বজনরা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পথিমধ্যেই তার মৃত্যু হয়েছে এবং শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। তবে স্বজনরা জানিয়েছেন ঝড়-বৃষ্টি শুরু হলে জ্বালানীকাঠ ঘরে তোলার সময় উঠানে থাকা নারিকেল গাছে বজ্রপাত হলে মলিনা গাইন আহত হয়। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা।

বরিশাল আবহাওয়া অফিসের উচ্চ পর্যবেক্ষক মো. মিলন হাওলাদার জানান, এটি বৈশাখী ঝড়, এ সময় হয়ে থাকে। তবে একবার মাত্র বাতাসে ধাঁক্কা দেওয়ায় এবং এর স্থায়ীত্ব দেড় মিনিট হওয়াতে ক্ষয়-ক্ষতি বেশি হয়নি। এছাড়াও বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৫০ কিলোমিটার। ঝড়ের সময় ১১ দশমিক ৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছেন তারা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ