শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

ভৈরব নদ থেকে তিন হাজার লিটার চোরাই তেল জব্দ ॥ চার চোরাকারবারী গ্রেফতার

খুলনা অফিস: খুলনায় তিন হাজার ৪০ লিটার চোরাই তেল জব্দ করা হয়েছে। চারটি নৌকায় পাচারকালে র‌্যাব সদস্যরা এ পরিমাণ তেল জব্দ করে। এ ঘটনায় চার চোরাকারবারীকে গ্রেফতার করা হয়। গত শুক্রবার ভোররাতে র‌্যাব খুলনার ভৈরব নদে এ অভিযান পরিচালনা করে।
র‌্যাব-৬ জানায়, র‌্যাবের একটি দল শুক্রবার ভোর রাতে খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার সেনহাটি বাজার বান্দা ঘাট এবং ভৈরব নদের তীরবর্তী বার্মাশীল ঘাট এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় চারটি নৌকাসহ ৩ হাজার ৪০ লিটার চোরাই তেল জব্দ করা হয়। এর মধ্যে ডিজেল ২ হাজার ৮শ’ লিটার এবং ২৪০ লিটার ফার্নেস অয়েল। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে চার জন কালোবাজারিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা ইঞ্জিন চালিত নৌকার তলায় ঢেলে রাখা অবস্থায় কালোবাজারে বিক্রির জন্য ডিজেল এবং গুদামের পাশে নৌকা রেখে ক্যান ও ব্যারেলে ভরছিল। অভিযান টের পেয়ে নৌকার মাঝি ও কয়েকজন চোরাকারবারী পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃতরা হলো- দিঘলিয়ার ফরমাইশখানা গ্রামের শেখ লুৎফর রহমানের ছেলে মো. আক্তার হোসেন (৪২), একই গ্রামের শেখ আকরাম হোসেনের ছেলে শেখ মো. নাসিম উদ্দিন (২২), মো. আনোয়ার খানের ছেলে মো. আলামিন খান সুমন (২৯) ও মো. নজরুল খানের ছেলে মো. শিমুল খান (২২)। এ ঘটনায় দিঘলিয়া থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে।
র‌্যাবের সিপিসি স্পেশাল কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. এনায়েত হোসেন মান্নান বলেন, একটি চোরাকারবারী সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরেই জ্বালানি তেল পাচার এবং চুরির সঙ্গে জড়িত রয়েছে। তারা জাহাজ থেকে তেল চুরি করে ইঞ্জিন নৌকার তলায় রেখে ক্যান ও ব্যারেলে করে তা বিক্রি করে থাকে। এছাড়া সংশ্লিষ্টরা উদ্ধারকৃত তেল ক্রয়ের কোনো ডকুমেন্টসও দেখাতে পারেনি। এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ