শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

৬ মার্চ ৩ পার্বত্য জেলায় হরতার সফল করতে পার্বত্য নাগরিক পরিষদের আহ্বান

পার্বত্য নাগরিক পরিষদের চেয়ারম্যান আলকাছ আল মামুন ভুঁইয়া ও পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্রপরিষদের কেন্দ্রীয় আহবায়ক মো: আব্দুল হামিদ রানা রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এর ছাত্র শামসুজ্জামান বাপ্পির হল থেকে বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে।
গতকাল শনিবার মার্চ পার্বত্য নাগরিক পরিষদ  এর দপ্তর সম্পাদক মো: খলিলুর রহমান স্বাক্ষরিত সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক ইমেইল বার্তায় উক্ত দাবি প্রেরণ করা হয়।
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শামসুজ্জামান বাপ্পীকে যে অভিযোগে বহিষ্কার করা হয়েছে তা ভিত্তিহীন। তার নেতৃত্বেই রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রেণী কার্যক্রম চালু করার জন্য আন্দোলন হয়েছে, তার নেতৃত্বে শিক্ষার্থীরা স্থায়ী ক্যাম্পাসের জন্য আন্দোলন করেছে, এটাই তার অপরাধ। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ও দাবী/দাওয়াকে স্তব্ধ করা এবং বিশ্ববিদ্যালয়েরর প্রশাসনের বিরুদ্ধে পার্বত্য নাগরিক পরিষদ ও পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্রপরিষদের চলমান আন্দোলনকে ধামাচাপা দিতেই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন বাপ্পী কে বহিষ্কার করেছে। আর তাকে বহিষ্কারের ইন্দন দাতা হচ্ছে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় যারা রাঙ্গামাটিতে হতে দিতে চায় না তারা। পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এখন জেএসএস এর দোসরদের দখলে চলে যাচ্ছে এবং পরবর্তীতে আরও ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটাতে পারে। তাই সরকার এখনই এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি সহ উপজাতীয় শিক্ষকদেরকে সরিয়ে না দিলে পরে চড়া সুধে মাসুল গুণতে হবে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে বাপ্পীর বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহার করার জোর দাবি জানিয়েছেন।
এ দিকে নেতৃদ্বয় পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্রপরিষদ ও পার্বত্য নাগরিক পরিষদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি রাঙ্গামাটি মেডিকেল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ ও ভর্তিতে পার্বত্য বাঙালি কোটা চালু, বিতর্কিত পার্বত্য ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন সংশোধনী আইন ২০১৬ অবিলম্বে বাতিল করা সহ পার্বত্য বাঙালি ছাত্রপরিষদের নিয়মিত ৮ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ৬ মার্চের সকাল-সন্ধ্যা ৩ পার্বত্য জেলায় হরতাল পালনের জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ