রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

কম্পিউটারাইজড ডিপার্টচার কার্ড সার্ভিস চালু করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স

 

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স যাত্রা শুরু করার পর থেকেই নিত্য নতুন আন্তর্জাতিক মানের সার্ভিস চালু করে যাত্রীসাধারণকে উন্নতমানের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের বিমান পরিবহনের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কম্পিউটারাইজড্ ডিপার্টচার কার্ড সার্ভিস চালু করেছে। 

সম্প্রতি ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বহির্গমন যাত্রীদের সুবিধার্থে বিমানবন্দরে চেক-ইন কাউন্টারে বোর্ডিং পাশ ইস্যূ করার পর কম্পিউটারাইজড্ ডিপার্টচার কার্ড প্রদান শুরু করেছে। যাত্রীর নাম, জন্ম তারিখ, পাসপোর্ট নম্বর, পাসপোর্ট ইস্যু ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ, ফ্লাইট নম্বরসহ অন্যান্য জরুরি তথ্যাবলি কম্পিউটারাইজড্ ডিপার্টচার কার্ডে লিপিবদ্ধ থাকছে। ফলে যাত্রীদের পূর্বের ন্যায় হাতে লিখার প্রয়োজন পড়ছে না। সরকারী কিংবা বেসরকারি উদ্যেগে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশ থেকে জনশক্তি রফতানি করে থাকে। কিন্তু এই জনশক্তির বৃহদাংশই স্বশিক্ষিত কিংবা অল্প শিক্ষিত। যাত্রীদের বেশির ভাগই প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ঢাকা কিংবা চট্টগ্রাম হয়ে বিদেশ যাত্রার প্রাক্কালে বহির্গমন কার্ড পূরণ করা একটি অতিরিক্ত বোঝা মনে করেন। কিন্তু সঠিকভাবে এই কার্ড পূরণ করা না হলে ইমিগ্রেশন জটিলতায় পড়ার সম্ভাবনা থাকে। এই বিড়ম্বনা এড়ানোর জন্য বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ওয়েজ আর্নারস ডেস্কের পাশাপাশি কম্পিটারাইজড্ ডিপার্টচার কার্ড প্রদান সার্ভিস শুরু করেছে। যা যাত্রী সাধারণের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ সৃষ্টি করেছে।

এ ধরনের উদ্যোগ ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের যাত্রীসেবার মানকে আরো বেশি সমৃদ্ধ করবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ