মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বেঙ্গালুরু টেস্টেও দিশেহারা ভারত

নাথান লিওনের স্পিন তা-বে ত্রাহি অবস্থায় ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক: বেঙ্গালুরুতে প্রথম দিন ভারতকে নাকানিচুবানি দিলো অজি স্পিনার নাথান লিওন। নাথান লিওনের ঘূর্ণিতে ৭১.২ ওভারে ১৮৯ রানেই গুটিয়ে যায় ভারতীয়দের ইনিংস। লিওন একাই আটটি উইকেট দখল করেন। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দিন শেষে বিনা উইকেটে তুলেছে ৪০ রান। টিম ইন্ডিয়ার থেকে এখনও ১৪৯ রানে পিছিয়ে অজিরা। এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ভারতীয় দলপতি বিরাট কোহলি। দলীয় ১১ রানে ওপেনার অভিনব মুকুন্দের (০) উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। তৃতীয় ওভারে তাকে এলবির ফাঁদে ফেলেন পেসার মিচেল স্টার্ক। এরপর চেতশ্বর পুজারাকে (১৭) পিটার হ্যান্ডসকম্বের ক্যাচে পরিণত করেন লিওন। রাহুল-পুজারার জুটিতে আসে ৬১। প্রথম সেশন শেষে  ২৭.৫ ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে ৭২ রান তোলে স্বাগতিকরা। আবারো  ব্যর্থ হন দলপতি কোহলি। বেঙ্গালুরুতে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মাত্র ১২ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। টানা তিন ইনিংসে (প্রথম টেস্টে ০, ১৩) হাসেনি কোহলির ব্যাট। কোহলিকে এলবির ফাঁদে ফেলেন স্পিনার নাথান লিওন। লিওনের তৃতীয় শিকারে সাজঘরে ফেরেন রাহানে। প্রথম টেস্টের নায়ক স্টিভ ও’কিফ তার ঘূর্ণি জাদুতে নায়ারকে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলেন। দ্বিতীয় সেশন শেষে ভারত ৫৯ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ১৬৮ রান। লিওনের চতুর্থ শিকারে বিদায় নেন ৭ রান করা রবীচন্দ্রন অশ্বিন। লিওনের পঞ্চম শিকারে স্টিভেন স্মিথের তালুবন্দী হন ঋদ্ধিমান সাহা। লিওন তার ষষ্ঠ শিকার বানান ৩ রান করা রবীন্দ্র জাদেজাকে। ওপেনার লোকেশ রাহুলকেও বিদায় করেন লিওন। শতক থেকে মাত্র ১০ রান দূরে থাকতে ম্যাট রেনেশর তালুবন্দী হন রাহুল। লিওন ২২.২ ওভারে ৪ মেডেন নিয়ে ৫০ রানের বিনিময়ে তুলে নেন আটটি উইকেট। একটি করে উইকেট তুলে নেন স্টার্ক ও স্টিভ ও’কিফ। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৬ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৪০ রান তুলে দিন পার করে অস্ট্রেলিয়া। ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ২৩ ও ম্যাট রেনশ ১৫ রানে অপরাজিত থেকে দ্বিতীয় দিন ব্যাটিংয়ে নামবেন। আগে ভারতের মাটিতে টানা সাত টেস্টে হারের পর ৩৩৩ রানের উড়ন্ত জয়ে বাঁধভাঙা উল্লাসে মাতে অজিরা। বাঁহাতি স্পিন ঘূর্ণিতে একাই ১২টি উইকেট নিয়ে ভারতের ব্যাটিং লাইনআপ ধসিয়ে দেন ম্যাচ সেরা স্টিভ ও’কিফ। দুই ইনিংস মিলিয়ে টিম ইন্ডিয়ার সংগ্রহ ছিল ২১২ (১০৫ ও ১০৭)।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ