বৃহস্পতিবার ২৬ নবেম্বর ২০২০
Online Edition

আর্সেনালের মোকাবেলায় চাপে থাকা লিভারপুল কোচ ক্লপ

আজ জার্গেন ক্লপের লিভারপুল প্রিমিয়ার লীগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মোকাবেলা করবে আর্সেনালের। চলতি মৌসুমে অবশ্য আর্সেনালের বিপক্ষে দারুণ এক সফলতা রয়েছে লিভারপুলের। তবে গত সোমবার লিস্টার সিটির কাছে ৩-১ গোলে হেরে যাওয়া রেডসরা কিছুটা হলেও মানসিক চাপে থাকবে। লীগে শীর্ষস্থানীয় ক্লাবের বিপক্ষে এখন সেটি থেকে উত্তরণের দায় তাদেরই। গত নভেম্বরে দাপটের সঙ্গে লীগ মিশনে নামা লিভারপুল এখন ক্রমশ দুর্বল হয়ে আসছে। শনিবার অনুষ্ঠেয় আগের ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড যদি বার্নমাউথের বিরুদ্ধে জয়লাভ করে তাহলে পয়েন্ট টেবিলের পঞ্চম স্থানে নেমে আসা লিভারপুল আর্সেনালের বিপক্ষে ম্যাচটি শুরু করবে ষষ্ঠ অবস্থানে থেকে। তালিকার শীর্ষ যে ছয়টি দল রয়েছে তাদের মধ্যে লিভারপুলই একমাত্র দল যারা ৪-৩-৩ ফর্মেশনে অপেক্ষাকৃত ভালো দক্ষতা প্রদর্শন করেছে। চলতি মৌসুমে চেলসি, ম্যানচেস্টার সিটি, টোটেনহ্যাম, আর্সেনাল ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে ৮টি ম্যাচ খেলেছে লিভারপুল। যেখানে তারা চারটিতে জয় এবং চারটিতে ড্র করেছে। বরং কিছুটা উল্টো চিত্র দেখা গেছে অপেক্ষাকৃত নীচের সারির দল গুলোর সঙ্গে ম্যাচে। ক্লপ তার দলের সেন্ট্রাল ডিফেন্সকে এখনো পর্যন্ত স্থিতিশীল করতে পারেননি। গত মাসে হাঁটুর ইনজুরিতে পড়ে ডেজান লোভরেন দলের বাইরে চলে যাওয়ায় সেখানকার অবস্থা আরো খারপ হয়েছে। লিস্টার সিটির বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচে মিডফিল্ডার লুকাস লেইভাকে জুয়েল ম্যাটিপের সঙ্গে সেন্টার ডিফেন্সে খেলানোর ফলে এটিই প্রমানীত হয়েছে যে সেখানে তারা জেমি ভার্ডির সঙ্গে সঠিকভাবে সংযোগ রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছে। লোভরেন এখন সম্পূর্ণ ফিট হয়ে ফিরে আসলেও রক্ষনভাগ নিয়ে উৎকন্ঠা কাটেনি কোচের। ক্লাবের দায়িত্ব গ্রহণের পর বিগত ১৭ মাসে ২০জন খেলোয়াড়কে সেন্টার ব্যাকে ব্যবহার করেছেন ক্লপ। শুধুমাত্র রক্ষনভাগেই নয় বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে সমস্যার সৃস্টি হচ্ছে তার। লিস্টার সিটির কাছে হেরে যাওয়া ম্যাচে স্ট্রাইকার ডেনিয়েল স্টুরিজ বেশ কটি গোলের সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয়েছেন। এখন অতীত ভুলে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চান এই জার্মান কোচ। বলেন, ‘এখন আমরা সামনের দিকে তাকাতে চাই এবং নতুন করে পাওয়া সুযোগগুলো কাজে চাই। এখন এটিই আমাদের জন্য একমাত্র করণীয়। আর্সেনালে কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গারের ক্লাবে থাকা না থাকাটিই বড় ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। দীর্ঘ ২০ বছর ধরে দায়িত্ব পালন করা এই ফরাসি কোচের চুক্তির মেয়াদ ২১তম বছরের জন্য বাড়ানো হবে কিনা সেটি এখনো নিশ্চিত হয়নি। ৬৭ বছর বয়সি এই কোচ ইতোমধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন যে ক্লাবের আগ্রহের ভিত্তিতেই তিনি এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। তিনি বলেন, ‘আমি বরাবরের মতোই এখানে দায়িত্ব পালন করে যেতে চাই। আমি অন্য কোন ক্লাবে এখনো কাজের জন্য ধর্ণা দিইনি। দীর্ঘ ২০ বছর আমি এখানেই কাটিয়ে দিয়েছি। দল ছেড়ে যাবার অনেক সুযোগ এসেছিল। কিন্তু তাতে আমি সাই দিইনি। কারণ আমি আর্সেনালকেই সব সময় গুরুত্ব দিয়ে আসছি। তবে পুরো বিষয়টি নির্ভর করছে ক্লাবের আগ্রহের ওপর, সেই সঙ্গে অবশ্যই নিজের আগ্রহের বিষয়টিও গুরুত্ব পাবে।’ বর্তমানে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা চেলসির চেয়ে ১৩ পয়েন্ট কম নিয়ে তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে আর্সেনাল। আর লিভারপুলের চেয়ে এক পয়েন্ট বেশী। যাদের সঙ্গে এনফিল্ডে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে তার দলটি। ওয়েঙ্গার বলেন, ‘এখন আমাদের মনোযোগ দিতে হবে আসন্ন ম্যাচের প্রতি। পরিস্থিতি পরিবর্তন হতে একটি ম্যচই যথেষ্ট। এখন ভালো একটি ফলাফলই বেশি কাম্য। কারণ চেলসিকে ধরতে হলে নিজেদের যেমন ভালো খেলতে হবে সেই সঙ্গে চেলসির হারের দিকেও তাকিয়ে থাকতে হবে।’ ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ