রবিবার ০৯ আগস্ট ২০২০
Online Edition

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে সাক্কুকে  ২০ দলের সমর্থন

 

স্টাফ রিপোর্টার : অবিলম্বে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি এবং আসন্ন কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়ন বিষয়ে যৌথ সভা করেছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিশ দলীয় জোট। এতে ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী থাকবেন বিএনপির মনিরুল ইসলাম সাক্কু। 

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়া পল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের মহাসচিব পর্যায়ের এক যৌথ সভা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব আব্দুল মতিন সাউদ, জাতীয় পার্টির মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, ইসলামী ঐক্যজোটের আব্দুল করিম, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের (বিএমএল) মহাসচিব শেখ জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, খেলাফত মজলিশের যুগ্ম মহাসচিব মুহাম্মদ শফিকউদ্দিন, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি এনপিপি মহাসচিব মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, বাংলাদেশ ন্যাপ’র মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির মহাসচিব মো: আবু তাহের, বাংলাদেশ লেবার পার্টির যুগ্ম মহাসচিব মো: সামসুদ্দিন পারভেজ, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (ন্যাপ-ভাসানী) ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব গোলাম মোস্তফা আকন্দ, বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টির মহাসচিব মো: আবুল কাশেম, ডেমোক্রেটিক লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খোকন চন্দ্র দাস, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা ফজলুল করিম কাসেমী, বাংলাদেশ পিপলস লীগের মহাসচিব এ্যাডভোকেট সৈয়দ মাহবুব হোসেন এবং সাম্যবাদী দল এর কেন্দ্রীয় সম্পাদক সাইদ আহমেদ।

 যৌথসভায় গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ এবং অবিলম্বে গণবিরোধী এই সিদ্ধান্ত বাতিলের আহবান জানানো হয়। 

একইসাথে সভায় ২০ দলীয় জোটের পক্ষ থেকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কুকে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে সমর্থন দেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। উক্ত নির্বাচনে এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদকে ২০ দলীয় জোটের পক্ষে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব দেয়ার প্রস্তাব গৃহীত হয়।

এছাড়া বাংলাদেশ লেবার পার্টির মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদীকে গ্রেতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয় এবং অবিলম্বে তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ