বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

মূর্তি নির্মাণের মাধ্যমে মুসলমানদেরকে পৌত্তলিকতার দিকে নেয়ার চক্রান্ত চলছে -ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

 

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেছেন, ৯২ ভাগ মুসলমানের দেশের সর্বোচ্চ বিচারালয়ের সামনে লেডী মূর্তি নির্মাণ করে মুসলমানদেরকে পৌত্তলিকতার দিকে নিয়ে যাওয়ার চক্রান্ত চলছে। ইসলামবিরোধী এই চক্রান্ত ঈমানদার জনতা রুখে দিবে। তিনি বলেন, ন্যায় বিচারের প্রতীক মূর্তি হতে পারে না। জাতীয় ঈদগাহ’র পাশে মূর্তি স্থাপন করে দুই ঈদের নামাযের জামাতশেষে সালাম ফিরানোর সাথে সাথে লেডী মূর্তির দিকে সকলের নজর আকৃষ্ট হবে। এটি নামায বিনষ্ট করার একটি নতুন ষড়যন্ত্র। কাজেই মূর্তিটি অপসারণ করতেই হবে। আল্লাহ ও তার নাযিল করা কুরআন হচ্ছে ন্যায় বিচারের প্রতীক। আল্লাহ ন্যায় বিচারের সকল পদ্ধতি পবিত্র কুরআনে লিপিবদ্ধ করেছেন। কারণ মূর্তির বাকশক্তি ও বোধশক্তি নেই। কাজেই মূর্তির বিরুদ্ধে আন্দোলনকে স্বাধীনতা বিরোধী আখ্যা দেয়া কোনভাবেই মেনে নেয়া হবে না। মূর্তিকে ন্যায় বিচারের প্রতীক মনে করলে ঈমান থাকবে না, সে মুশরিক হয়ে যাবে। মূর্তি মুসলমানের চিন্তা চেতনা বিরোধী। কাজেই এই মূর্তি অপসারণ না করলে ঈমানের স্বার্থে ঈমানদাররা মূর্তি ভেঙ্গে ফেলতে বাধ্য হবে।

তিনি অবিলম্বে মূর্তি অপসারণের দাবিতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ আজ শুক্রবার বাদ জুম্মা রাজধানীতে অনুষ্ঠিতব্য গণমিছিল সফলের জন্য সফল করার প্রতি আহ্বান জানান।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর এক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। সভায় উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম মহাসচিব- অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, নগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, আব্দুর রহমান, শায়খুল হাদীস মাওলানা মকবুল হোসাইন, হারুন অর রশিদ প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ