বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সুন্দরবনে র‌্যাবের সাথে বন্দুক যুদ্ধে বনদস্যু বিল্লাল মীর নিহত

খুলনা অফিস : সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জ এলাকার সুখপাড়ার চরে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু শামসু বাহিনীর সেকেন্ড ইন্ড কমান্ড বিল্লাল মীর ওরফে কানা বিল্লাল নিহত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আধা ঘণ্টাব্যাপী বন্দুকযুদ্ধের পর র‌্যাব সদস্যরা বনের অভ্যন্তরে ছড়িয়ে থাকা বনদস্যুদের ব্যবহৃত ৫টি আগ্নেয়ান্ত্র ও ৭৭ রাউন্ড গুলী এবং বিভিন্ন উপকরণ উদ্ধার করে। 

র‌্যাব-৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আদনান কবীর জানান, শরনখোলা রেঞ্জের সুখপাড়ার চর এলাকায় দস্যুতার উদ্দেশ্যে বনদস্যু শামসু বাহিনীর সদস্যরা সংঘটিত হয়েছে এমন খবর নিশ্চিত হয়ে র‌্যাব- ৮ এর একটি দল সুন্দরবনের ওই এলাকায় যায়। এ সময়ে র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে বনদস্যুরা র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলী ছুঁড়তে থাকে। এক পর্যায়ে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলী ছোঁড়ে। আধা ঘণ্টাব্যাপী উভয় পক্ষের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধের পর বনদস্যুরা পিছু হটে যায়। পরে র‌্যাব সদস্যরা বনের ভেতর থেকে বনদস্যু বিল্লাল মীরের লাশ ও বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে থাকা ৫টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ৭৭ রাউন্ড গুলী উদ্ধার করে।

র‌্যাব-৮ এর উপ অধিনায়ক মেজর আদনান কবির আরো জানান, নিহত বনদস্যু শামসু বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড বিল্লাল মীর ওরফে কানা বিল্লাল বলে স্থানীয় জেলেরা তাদেরকে জানিয়েছে। বন্দুকযুদ্ধে নিহতের লাশ ও উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গুলী বাগেরহাট জেলার শরণখোলা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি আরো বলেন, বিল্লাল এর আগে সুন্দরবনের দস্যু রাজু বাহিনীর সদস্য ছিল। পরে রাজু বিদেশে চলে গেলে সে অন্য দস্যু বাহিনীর সঙ্গে যুক্ত হয়। সবশেষে শামসু বাহিনীতে যোগ দিয়ে পূর্ব সুন্দরবনে আসা জেলে-বাওয়ালীদের জিম্মি করে চাঁদা আদায় করত বিল্লাল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ