শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

পাকিস্তানে সরাসরি প্রতিনিধি পাঠাচ্ছে না বিসিবি

স্পোর্টস রিপোর্টার : পাকিস্তানের বিপক্ষে তাদের মাটিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে সরাসরি কোনো নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল পাঠাচ্ছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। যদিও কেউ যান তাহলে তিনি আইসিসি’র ডেলিগেটস হিসবে দেশটিতে যাবেন। এমনটাই জানানো হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে। পাকিস্তানের মিডিয়াগুলো খবর প্রকাশ করেছে যে, আগামী নবেম্বর-ডিসেম্বরে বাংলাদেশকে নিয়ে তারা একটি দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন করতে চায়। আর পিসিবি’র এমন প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে বিসিবি নাকি একটি একটি নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দলও লাহোরে পাঠাবে। আন্তর্জাতিক কোন ম্যাচ আয়োজনের মতো পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেশটিতে আছে কি না সেই বিষয়টি দেখতেই আগামী ৫ মার্চ লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল)’র ফাইনালে সমবেত হবেন আইসিসি’র টেস্ট খেলুড়ে দেশের প্রতিনিধিরা, যেখানে বাংলাদেশ থেকেও একজনের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।  এব্যাপারে গতকাল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘বাংলাদেশ ক্রিকেটের কোন নিরাপত্তা দলই পাকিস্তানে যাবে না। পিএসএল’র ফাইনাল ম্যাচ পাকিস্তানের লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। তারই ধারাবাহিকতায় পিসিবি তাদের দেশে খেলার জন্য বিভিন্ন দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। পিএসএল ফাইনাল ম্যাচের নিরাপত্তা ব্যবস্থাগুলো আইসিসির পূর্ণ সদস্যের দেশগুলোকে তারা দেখাতে চাচ্ছে যে, নিরাপত্তার বিষয়টি তারা কিভাবে আয়োজন করছে। তারই প্রেক্ষিতে আইসিসি আমাদের জানিয়েছে যে আমরা যদি কোন প্রতিনিধি পাঠাতে চাই সেক্ষেত্রে আইসিসি এর ব্যবস্থা করবে। এর উপর ভিত্তি করে আমাদের একজন প্রতিনিধি ওই আইসিসির ডেলিগেটসদের সঙ্গে থাকবেন।’ পাকিস্তানের বিপক্ষে তাদের মাটিতে আগামী নবেম্বর-ডিসেম্বর বাংলাদেশের সিরিজ খেলার সম্ভাবনা আছে কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে সুজন বলেন, ‘আমাদের বর্তমান ঘরোয়া ক্রিকেটের যে ক্যালেন্ডার আছে সে অনুযায়ী ওই সময়ে আমাদের বিপিএল আয়োজনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত চলছে।’ টাইগারদের ফিজিও ডিন কনওয়ের বিদায় নিয়ে সিইও সুজন, ‘ডিন কনওয়ের বিষয়টি প্রক্রিয়ার মধ্যে আছে। যেহেতু উনি জাতীয় দলের সাথে শ্রীলংকা যাননি এ ব্যাপারে আমাদের সিদ্ধান্ত পরে জানাবো।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ