বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ফেরার অপেক্ষায় ইমরুল

স্পোর্টস রিপোর্টার : নিউজিল্যান্ড সফরে ইনজুরিতে পড়ায় তার ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন ছিলো। বিসিবির তত্বাবধানে পুর্নবাসনে কাটিয়ে মাঠে ফিরে ফিটনেসের প্রমণ ব্যাটে হাতে দিয়েছেন দুর্দান্তভাবে। বিসিএলে সেঞ্চুরি করে নিজেকে প্রমাণ করেছেন ব্যাটিংয়ে ও ফিটনেসে। ফলে লংকান সফরে দলের সঙ্গে না যেতে পারলেও, ইতিমধ্যে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানিয়েছেন, দ্বিতীয় টেস্টেই দলে ফিরবেন ইমরুল। পাশাপাশি নিজেদের মাঠে শ্রীলঙ্কা শক্তিশালী প্রতিপক্ষ হলেও ভারতে মুশফিকদের সাম্প্র্রতিক পারফরমেন্স আশাবাদী নান্নু। সম্প্রতি হোম ও অ্যাওয়ে সিরিজগুলোতে প্রায় প্রতি ম্যাচেই এক বা একাধিক খেলোযাড় ইনজুরিতে পড়ছে, ক্রিকেটারদের ফিটনেস সমস্যার তালিকা ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে। মূলত নিউজিল্যান্ড সফরে ইনজুরিতে পড়ে ভারত সফরের দলের ছিলেন না ইমরুল। এরই ধারাবাহিকতায় লঙ্কানদের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের জন্য বিবেচিত হননি ইমরুল কায়েস। তবে ইনজুরি কাটিয়ে খেলছেন বিসিএল। সেখানেই প্রমাণ করেছেন নিজেকে, ফিটনেস কিংবা ফর্ম সব ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন অবিচল। বিসিএলে এক সেঞ্চুরিতে আবারো আলোচনায় এই ওপেনার। তারপরও তার বিষয়ে এখনই চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না বিসিবি। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেছেন, এখানে কিন্তু ইমরুল কায়েসের ভালো খেলার জন্য তাকে নেই নি তা নয়, ওর ফিটনেস লেভেলটা একটু দেখার জন্য। তবে ও যদি ফিট থাকে তাহলে দ্বিতীয় টেস্টের জন্যই ওকে বিবেচনা করা হবে। ২০১৫ সালে সাঙ্গা-মাহেলার অবসরের পর নিজেদের উত্থান পতন দেখেছে লঙ্কান ক্রিকেট। তারপরও দেশের মাটিতে দলটা ঘুরে দাঁড়াতে পারে যে কোন মুহূর্তেই। যার প্রমাণও রাখছে তারা। তাইতো নান্নু ক্রিকেটারদের সর্তক করে, বাড়তি দায়িত্ব নিতে বললেন ব্যাটসম্যানদের। আমরা কিন্তু বলতে পারবো না যে, শ্রীলঙ্কাকে এখন গিয়ে হারিয়ে দেবো। আমি মনে করি তারা নিজেদের মাটিতে অনেক শক্ত টিম। আমাদের খেলোয়াড়রা এখন যথেষ্ঠ অভিজ্ঞ। এই অভিজ্ঞতাটা কাজে লাগাতে পারলে আমরা অবশ্যই ভালো করবো।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ