সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

পরিস্থিতি ভালো হলেই পাকিস্তানে খেলবেন সাকিব

স্পোর্টস রিপোর্টার : পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেট উৎসব পিএসএল। পিসিএলকে ঘরোয়া ক্রিকেট বলা হলেও দেশটিতে সন্ত্রাসের থাবায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের উপযুক্ত পরিবেশ না থাকায় ঘরের মাঠে আজও এর আয়োজন করতে পারেনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। শুরু থেকেই আসরটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে দুবাইতে। তবে এবারের আসরের ফাইনাল ম্যাচটি ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত হবে বলে ইতিমধ্যে ঘোষণা দিয়েছেন আয়োজকরা। ফলে এরই মধ্যে বিদেশী ক্রিকেটারদের অনেকেই সেখানে খেলতে যেতে অপরাগতা প্রকাশ করেছেন। অবশ্য এ ক্ষেত্রে সেখানে অংশ নেয়া বাংলাদেশী ক্রিকেটারদের অবস্থান এখনও পরিস্কার নয়। এবারের পিএসএল আসরে বাংলাদেশ থেকে সাকিব ছাড়াও অংশ নিচ্ছেন বাংলাদেশের ড্যাশিং ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল ও অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সাকিব-তামিমের দল পেশোয়ার জালমি হলেও, মাহমুদউল্লাহ খেলছেন কোয়েটা গ্লাডিয়র্সের হয়ে। তবে, সেখানে খেলার জন্যে এখনও আগ্রহ আছে বাংলাদেশের বিশ্বখ্যাত অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। গতকাল পাকিস্তানি গণমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে এক সাক্ষাতকারে সাকিব জানিযেছেন পরিস্থিতি ভালো হলে পাকিস্তানে খেলতে চান তিনি। ওই সংবাদধ্যমকে সাকিব বলেন, ‘আমি সর্বশেষ পাকিস্তানে খেলেছি সেই ২০০৮ সালে। আমার জন্য অসাধারণ এক অভিজ্ঞতা ছিল। দর্শক, মাঠ, আবহাওয়া, সমর্থক এবং পুরো পরিবেশটাই ছিল দুর্দান্ত। আমি সত্যি আশা করি, পরিস্থিতি ভালো হলেই আবারও পাকিস্তানে খেলতে পারব। ’ আগামীতে পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন এই টাইগার অলরাউন্ডার। সাকিব বলেন, ‘পিএসএল যদি আরব আমিরাতে না হয়ে পাকিস্তানে হতো, তাহলে আরও বেশি উত্তেজনা থাকত, আবেগ থাকত। পাকিস্তান খুব কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, কিন্তু আশা করি আস্তে আস্তে সব ভালো হয়ে যাবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটও ফিরে আসবে সেখানে। ’ তবে পিএসএল আয়োজন করার পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রশংসা করেছেন সাকিব। এমনকি এই টুর্নামেন্টকে বিশ্বমানের বলেও মত দিয়েছেন তিনি। সাকিব বলেন, ‘পিএসএল বিশ্বের অন্য লিগগুলোর প্রায় কাছাকাছি মানের। এমন প্রতিযোগিতা আয়োজন করায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রশংসা করতেই হচ্ছে। সারা বিশ্বের খেলোয়াড়দের মেশার সুযোগ করে এ লিগগুলো, কিন্তু পিএসএলের মতো এত চমৎকার আবহ সৃষ্টি করতে খুব কম বোর্ডই পারে!’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ