বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

‘ফারাক্কা এখন বিহারের অভিশাপ’

২৭ ফেব্রুয়ারি, পিটিআই, ইকোনমিক টাইমস : ফারাক্কা বাঁধ বিহারবাসীর কাছে ‘অভিশাপ’ হয়ে দেখা দিয়েছে। এমনটাই মনে করছেন খোদ ভারতীয় বিশেষজ্ঞরাই।
ম্যাগসাইসাই পুরস্কার বিজয়ী রাজেন্দ্র সিংহ, যাকে দেশের ‘ওয়াটারম্যান’ বলে অভিহিত করা হয়Íফারাক্কা বাঁধ হঠানোর প্রস্তাব দিয়েছেন। তিনি বলেন, ফরাক্কা হলো বিহারের কাছে অশুভ। এটা একটা অভিশাপ যাকে সরানোর প্রয়োজন। কারণ, যতক্ষণ তা না হচ্ছে, ততক্ষণ এগিয়ে যাওয়া অসম্ভব।
রোববার একটি আন্তর্জাতিক সেমিনারে অংশগ্রহণ করতে গিয়ে রাজেন্দ্র বলেন, এতদিন ফারাক্কার কারিগরি ও প্রযুক্তিগত দিকগুলী নিয়েই আলোচনা হয়েছে। পাশাপাশি, পরিবেশগত থেকে শুরু করে এর সাংস্কৃতিক, প্রাকৃতিক, আধ্যাত্মিক দিকগুলোও খতিয়ে দেখা দরকার।
আরেক বিশেষজ্ঞ হিমাংশু ঠক্কর জানান, ফারাক্কা বাঁধের কার্যকারিতা বলতে কিছুই নেই। সেচ থেকে শুরু করে বিদ্যুৎ, পানি সরবরাহ, কোনো কাজেই আসছে না ফারাক্কা। তার প্রস্তাব, গোটা বিষয়টি (ফারাক্কার প্রয়োজনীয়তা) খতিয়ে দেখার সময় এসেছে।
তিনি যোগ করেন, সাধারণত, প্রত্যেক বাঁধের গুরুত্বের খতিয়ান ২০ বছর অন্তর খতিয়ে দেখা উচিত। কিন্তু, ৪২ বছর হয়ে গেলেও, ফরাক্কা নিয়ে কোনো পর্যালোচনা হয়নি। তার দাবি, ফারাক্কা যতদিন থাকবে, ততদিন গঙ্গার গতি থমকে যাবেই। ফলে, বিহারে ভয়াবহ বন্যা হবে।
এদিকে, গঙ্গা পুনঃজীবীকরণ নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের গঠিত উচ্চপর্যায়ের কমিটি প্রস্তাব দিয়েছে, বিহারের বন্যা পরিস্থিতি সামলাতে ফারাক্কা বাঁধ লাগোয়া জলাধারের চরায় ড্রেজিং করতে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ