বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ড. হারুন-অর-রশিদ দ্বিতীয় মেয়াদে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি নিযুক্ত

গাজীপুর সংবাদদাতা: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদকে রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর দ্বিতীয় মেয়াদে আরো ৪ বছরের জন্য ভিসি পদে গতকাল বুধবার নিয়োগদান করেছেন।
ড. হারুন-অর-রশিদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে বিএ (অনার্স) ও এম এ উভয় পরীক্ষায় ১ম স্থান অধিকার করে ১৯৮৩ সালে কমনওয়েলথ স্কলারশিপ নিয়ে লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়, সুইডেনের উপসালা বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাপানের রিউকোকু বিশ্ববিদ্যালয়ে পোস্ট-ডক্টরাল গবেষণা করেন। তিনি ১৯৭৯ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগে প্রভাষক হিসেবে তার শিক্ষকতা পেশা শুরু করেন। সেখান থেকে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে যোগ দেন। তিনি সিলেকশন গ্রেড প্রফেসর। তার ৩৭ বছরের শিক্ষকতা জীবনে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ এফ রহমান হলের প্রভোস্ট, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ৩ (তিন) বার নির্বাচিত ডিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি (২০০৯-২০১২), বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির জেনারেল সেক্রেটারি, অধ্যাপক শামসুল হক শিক্ষা কমিটির সদস্যসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। প্রফেসর হারুন-অর-রশিদ একজন প্রথিতযশা রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ও গবেষক। এ পর্যন্ত তার ৯টি গ্রন্থ ও দেশে-বিদেশে জার্নালে ৬৫টি গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। তার উল্লেখযোগ্য গবেষণা-গ্রন্থ হচ্ছে - দ্য ফোরস্যাডোয়িং অব বাংলাদেশ, ইনসাইড বেঙ্গল পলিটিক্স, বাঙালির রাষ্ট্রচিন্তা ও স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়, বাংলাদেশ : রাজনীতি, সরকার ও শাসনতান্ত্রিক উন্নয়ন ১৭৫৭-২০০০, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী পুনর্পাঠ, ‘আমাদের বাঁচার দাবী : ৬ দফার ৫০ বছর’, মূলধারার রাজনীতি : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, কাউন্সিল ১৯৪৯-২০১৬। তিনি বর্তমানে ভিসির দায়িত্বের পাশাপাশি বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটিতে ২০ খণ্ডে ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের এনসাইক্লোপিডিয়া’ রচনা প্রকল্পের প্রধান হিসেবে গবেষণাকর্মে নিয়োজিত রয়েছেন। তিনি এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জনক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ