রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩
Online Edition

সকল রাষ্ট্র মিলে জলবায়ু সমস্যার সমাধান করতে হবে

সংসদ রিপোর্টার: বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ নির্বাহী কমিটির চেয়ারপারসন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন একক রাষ্ট্রীয় সমস্যা নয়, এটি একটি বৈশ্বিক সমস্যা। এ সমস্যার বহুমাত্রিক রূপ রয়েছে। বিশ্বের সকল রাষ্ট্র মিলে এ সমস্যার সমাধান করতে হবে।
ভারতের ইন্দোরে ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) ও ভারতের লোকসভার যৌথ উদ্যোগে গতকাল রোববার অনুষ্ঠিত দক্ষিণ এশিয়ার স্পিকারদের ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জন’ শীর্ষক সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক প্লেনারি সেশনে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন তিনি।
গতকাল জাতীয় সংসদ থেকে পাঠানো এক তথ্য বিবরণীতে এ তথ্য জানানো হয়।
শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণ হিসেবে চিহ্নিত দূষণকারী কার্বন ও সিএফসি নির্গমনের ক্ষেত্রে স্বল্পোন্নত দেশগুলোর অবদান খুব নগন্য হলেও এদেশগুলো জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সবচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন।
তিনি জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সমস্যা মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক সকল কনভেনশন ও প্রটোকল যথাযথভাবে প্রতিপালনের জন্য উন্নত দেশগুলোকে আরও দায়িত্বশীল হওয়ার আহ্বান জানান।
স্পিকার বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কথা বিবেচনায় রেখে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনের পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে।
জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সৃষ্ট বিপর্যয়ের হুমকির সম্মুখীন সমস্যা মোকাবিলায় বাংলাদেশের অবস্থান তুলে ধরে তিনি বলেন, বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ক্ষতির হুমকির মধ্যে থাকা অন্যতম দেশ। জলবায়ুর সমস্যা মোকাবিলায় ইতোমধ্যে শেখ হাসিনা সরকার ‘জলবায়ু তহবিল’ গঠন করেছে, যা জলবায়ুর প্রভাবজনিত সমস্যা মোকাবিলায় মাইলফলক।
ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে খাদ্য উৎপাদন কমে যাচ্ছে, জীবন ও জীবিকার জন্য নিরাপদ সুপেয় পানির সংকট বেড়ে চলেছে। এ সমস্যার কারণে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বিপুল সংখ্যক মানুষ গৃহহীন ও বাসস্থান পরিবর্তনে বাধ্য হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ