বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সবজির ফলন দ্বিগুণ হলেও ভালো দাম পাচ্ছে না কৃষকরা

খুলনা অফিস : ফলন দ্বিগুণ হলেও দাম পাচ্ছেনা কৃষকরা। ফলে উৎপাদিত সবজি ক্ষেতেই পড়ে থাকছে। খুলনার ডুমুরিয়া এবার শীতকালীন সবজির উৎপাদন বাম্পার হয়েছে।
উপজেলার কৃষি অফিসের সবজি উৎপাদনে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে।
ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়, শীতকালীন সবজিব মধ্যে বাঁধাকপি, ফুলকপি, ওল কপি, বেগুন, টমেটো, সিম, বরবটি, বিট কপি, মূলা, গাজর, ঘি-কাঞ্চন শাখ, টক ও মিষ্টি পালং, লাল শাখ, লাউ, কুমড়া ইত্যাদি। তবে এ উপজেলায় সবচেয়ে বেশি সবজি উৎপাদন হয়েছে চিংড়ি ঘেরের অবশিষ্ট বেড়িবাঁধের উপর। এ উপজেলায় এবার দুই হাজার, ৯শ’ ১০ হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজির আবাদ করা হয়। এবার সবজি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল হেক্টরে প্রতি ১৫ মেট্রিক টন। যার লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে উৎপাদন হয়েছে প্রায় দ্বিগুণ। তবে এবার উৎপাদন বেশি হলেও সবজি বিক্রি হচ্ছে পানির দরে।
তাছাড়া অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার বহিরাগত সবজির ফঁড়িয়ার সংখ্যা অনেক কম বলে কৃষকদের উৎপাদিত সবজি অধিকাংশ ক্ষেতেই পড়ে থাকছে।
উপজেলা কৃষি অফিসার মো. নজরুল ইসলাম জানান, প্রতি বছর শীত মওসুমে কখনো না কখন বৃষ্টি ও ঝড় হয়ে ক্ষেতে সবজি লন্ডভন্ড হয়ে যায় কিন্তু এবার কোন প্রকৃতিক দুর্যোগ দেখা দেয়নি। ফলে সবজির বাম্পার উৎপাদন হয়েছে। তাছাড়া দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সবজির ফলন ভাল হওয়ায় ডুমুরিয়ায় বহিরাগত ফঁড়িয়ার সংখ্যা কম বলে সবজির চাহিদাও কম। এ কারণে সবজির দাম কম। ফলে কৃষকরা লোকসানের মুখে পড়ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ