শুক্রবার ১৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

তাড়াশ-মান্নান নগর সড়কের সংস্কার নেই ॥ যান চলাচলে দুর্ভোগ

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ): তাড়াশ থেকে মান্নান-নগর মহাসড়ক পর্যন্ত রাস্তাটির বেহাল দশা

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা: উত্তর তাড়াশের রানীর হাট থেকে মান্নান নগর মহাসড়ক পযর্ন্ত ওয়াবদা সংলগ্ন রাস্তাটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে বেহাল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে এ সড়ক দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ যান চলাচল করলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সেদিকে কোন ভ্রুক্ষেপই নেই। সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতাধীন এই সড়কটি রানীর হাট হইতে মান্নান নগর পযর্ন্ত ১৫ কিলোমিটার রাস্তার ইট খোয়া বালি উঠে গিয়ে খান্দা-খন্দে ভরে গেছে, বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা  ঘটেই চলেছে। প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে শত শত ভারি ও হালকা যান চলা লে চরমভাবে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। কিন্ত দীর্ঘদিনেও সড়কটির সংস্কার কাজ করা হয়নি। ফলে খানা-খন্দে ভরা  এ সড়কে অতি ঝুঁকিপুর্ণ অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাতায়াত করছে।
উল্লেখ, রানীরহাট হইতে মান্নান নগর মহাসড়ক ঢাকা- রাজশাহী যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা। তাড়াশ- রায়গঞ্জের সংসদ সদস্য গাজী মম আমজাদ হোসেন মিলন এমপি’র গ্রাম মাগুড়ার বাড়ীতে যাতায়াতের এই রাস্তার এমন বেহাল দশায় অনেকে হতাশ। ডিজিট্যাল বাংলাদেশের গ্রাম-গঞ্জে  উন্নয়নের ছোঁয়া লাগলেও তাড়াশের রাস্তা ঘাট স্কুল, কলেজ মাদ্রাসা, সেতু ব্রিজের তেমন উন্নয়ন হয়নি। সংশ্লিষ্ট বিভাগের উদাসীনতায় এ সড়কদিয়ে যাতায়াতসহ মালামাল পরিবহন করতে গিয়ে প্রতিদিন চরমভাবে দুর্ভোগের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।
বর্তমানে তাড়াশ উপজেলার রাণীরহাট হইতে নিমাইচড়া পযর্ন্ত রাস্তার মান্নান-নগর পযর্ন্ত ওয়াবদা বাঁধের ত্রুটির কারণে নির্বিঘ্নে যানচলাচল করতে পারছে না। এমনকি যান চলাচলে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। তাড়াশ উপজেলার ঘরগ্রামের মাওলানা সাইদুর রহমান ও হামকুড়িয়ার আঃ জব্বার মাস্টারসহ এলাকাবাসিরা বলেন, এই রাস্তাটি সংস্কার আশু প্রয়োজন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ