সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী ধরপাকড়ের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

১২ ফেব্রুয়ারি, সিএনএন/বিবিসি : আমেরিকার বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে বসবাসরত অভিবাসীদের গ্রেপ্তার অভিযানের কঠোর সমালোচনা করে এমন পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকার দাবিতে নিউ ইয়র্ক, টেক্সাস, লসঅ্যাঞ্জেলেস, ভার্জিনিয়া প্রভৃতি স্থানে বিক্ষোভ হয়েছে। নো ব্যান, নো রেজিস্ট্রি, ‘অ্যান্ড হোয়াইট সুপ্রিমেসি এবং নো ট্রাম্প, নো কেকেকে, নো ফ্যাসিস্ট ইউএসএ স্লোগান ধ্বনিত হয় এসব বিক্ষোভ থেকে।
শুক্রবার পর্যন্ত ৫ দিনে ক্যালিফোর্নিয়া, টেক্সাস, আরিজোনা, ইলিনয়, জর্জিয়া, নিউইয়র্ক, নর্থ ক্যারলিনা, ফ্লোরিডা, নিউজার্সি, মিনেসোটা প্রভৃতি অঙ্গরাজ্যে অভিবাসী অধ্যুষিত সিটিতে অভিযান চালায় ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট (আইস) এর এজেন্টরা। কতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তা নিন্দিষ্টভাবে জানাচ্ছে না আইস। তবে এসব ধরপাকড়ের মনিটরিংকারী কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবক সংস্থার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, অন্তত ৭০০ জনকে ডিটেনশন সেন্টারে রাখা হয়েছে নিজ নিজ দেশে পাঠিয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে। হঠাৎ করে অবৈধ অভিবাসী গ্রেফতার অভিযানে সারা আমেরিকায় অভিবাসী মহলে হইচই পড়ে গেছে।
এ ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের হোমল্যান্ড সিকিউরিটি মন্ত্রী জন কেলী মিডিয়াকে জানান, এটি বিশেষ কোনো কর্মসূচি নয়। চলমান স্বাভাবিক একটি প্রক্রিয়ারই অংশ। অবৈধ অভিবাসীর মধ্যে যারা গুরুতর অপরাধে লিপ্ত এবং যাদের বিরুদ্ধে বহুদিন আগেই ইমিগ্রেশন কোর্ট থেকে বহিষ্কারের নিন্দেশ জারি রয়েছে, কেবলমাত্র তাদেরকেই গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।
তবে আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, গত ২৫ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ অনুযায়ী ঢালাওভাবে ধরপাকড় শুরু করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ