বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

কিশোরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে মেশিন বিকল

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) সংবাদদাতা : নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে মেশিনটি ১৯ মাস ধরে বিকল হয়ে পড়ে আছে। এ কারণে হাসপাতালের বাইরে অবস্থিত প্রাইভেট ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে এক্স-রে করাতে হচ্ছে রোগীদের। আর এতে করে একদিকে যেমন তারা ভোগান্তির শিকার হচ্ছে অন্যদিকে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকাও।
হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালের মার্চ মাসে কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জন্য স্টারলিংক কোম্পানির ওই এক্স-রে মেশিনটি  সরবরাহ করে স্বাস্থ্য বিভাগ। এরপর দক্ষ প্রকৌশলীর অভাবে এটি প্রায় ৫ মাস বন্ধ থাকে। ২০১৪ সালে আগষ্ট মাসে প্রকৌশলী আসলে মেশিনটি চালু করা হয়। চালুর দুইমাস পর মেশিনটি প্রথম ত্রুটি দেখা দিলে তা মেরামত করা হয়। ২০১৫ সালের জুন মাসে এটি আবার দ্বিতীয়বারের মত বিকল হয়। তখন ২০১৫ সালের জুলাই মাসে মেরামতের জন্য সংশ্লিষ্ট শাখাকে (নিমিউ) চিঠি দেয় স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ। কিন্তুু মেরামতকারীরা এসে জানান, মেশিনটির ভিতরে পানি জমার কারণে কন্ট্রোল বোর্ড নষ্ট হয়ে গেছে। এরপর থেকে এভাবেই অচল পড়ে আছে যন্ত্রটি।
কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ গওছুল আজিম চৌধুরী জানান,মেশিনটি বিকল থাকায় গত একবছর যাবৎ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে কয়েকবার লিখিতভাবে জানিয়েছি কিন্তু কোন কাজ হচ্ছেনা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ