বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

মিরসরাইয়ে অগ্নিকাণ্ডে ১১ বসতঘর পুড়ে ছাই ॥ ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা : মিরসরাইয়ে রান্নাঘরের চুলা থেকে সূত্রপাত হওয়া ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১১ টি বসতঘর পুড়ে ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
আগুন নেভাতে গিয়ে আহত হয়েছে ৫ জন। আহতদের প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। রোববার উপজেলার ১৩ নম্বর মায়ানী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সৈদালী গ্রামের হাসু ভূঁইয়া বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মায়ানী ইউনিয়নের সৈদালী গ্রামের হাসু ভূঁইয়া বাড়ীর সিএনজি অটোরিক্সা চালক কাজলের রান্নাঘরের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে ওই বাড়ীর ১১ টি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুন নেভাতে গিয়ে আহত হয় আইয়ুব খাঁন, পলাশ, রবিন, ইকবাল হোসেন ও শিবলু। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তরা হলো আইয়ুব খাঁন, কাজল, ইউনুছ, ইব্রাহীম, খোরশেদ আলম, নুরুল আবছার, খোকন, ছলিম উল্ল্যাহ, ভাসানী, আফিল উদ্দিন, নুরুজ্জামান ছুট্টু। অগ্নিকান্ডে ১১ টি পরিবারের টিনের বসতঘর, নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, আসবাবপত্র পুড়ে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে বড়তাকিয়া বাজারের ব্যবসায়ী ও মিরসরাই ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।
১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য দিদার এলাহী জানান, মিরসরাই ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছার কারণে ঘনবসতির ওই বাড়ীর আরো অনেকগুলো বসতঘর রক্ষা করা সম্ভব হয়েছে। বাড়ীটিতে ঘনবসতি রয়েছে এবং অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মানুষগুলো খুবই দরিদ্র প্রকৃতির। অগ্নিকান্ডে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
মায়ানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির আহম্মদ নিজামী অগ্নিকান্ডের সত্যতা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ