মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০
Online Edition

শিবির নেতা জসিম উদ্দীন হাওলাদারের শাহাদাত বার্ষিকীতে দোয়া মাহফিল

গতকাল মঙ্গলবার ইসলামী ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগরী পশ্চিম শাখা আয়োজিত শহীদ জসিম উদ্দিন হাওলাদারের শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয় -সংগ্রাম

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের ২১৮তম শহীদ জসিম উদ্দীন হাওলাদারের ২য় শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা মহানগরী পশ্চিম শাখার উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল গতকাল মঙ্গলবার শাখার নিজস্ব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শাখা সভাপতি ডা.মুজাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও শাখা সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের হোসাইন রাজনের পরিচালনায় এতে প্রধান আলোচক ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় আইন সম্পাদক খালেদ মাহমুদ।
প্রধান আলোচক তার আলোচনায় বলেন, ইসলামী আন্দোলনের পথ কখনও সহজ ছিলো না। বরং ইসলামী আন্দোলনের পথ কঠিন বাস্তবতাকে সামনে রেখে এগিয়ে চলছে এবং ভবিষ্যতে একই ধারাবাহিকতায় এগিয়ে যাবে। যুগে যুগে জালিমশাহী সরকারের রোষানলের শিকার হয়েছে ইসলামী আন্দোলনের নিবেদিত দায়িত্বশীল-কর্মীরা। তারই ধারাবাহিকতা এখন বাংলাদেশে চলছে। শহীদ জসিম তার জীবন উৎসর্গ করে আল্লাহর এই জমিনে তার দ্বীনের কাজকে মজবুত করে গেছে। তাই আমাদের সকলকে শহীদ জসিমের ত্যাগকে বাংলাদেশের সবুজ ভূখণ্ডে ইসলাম প্রতিষ্ঠার কাজে লাগাতে হবে। এটিই হোক শহীদ জসিমের শাহাদাত বার্ষিকীর প্রত্যাশা।
উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি শিবিরের কেন্দ্র ঘোষিত প্রতিবাদ মিছিল রাজধানীর শ্যামলীতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। মিছিল থেকে ফেরার পথে শহীদ জসিমসহ কয়েকজন কর্মীকে আগারগাঁওগামী লেগুনা হতে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ নামিয়ে থানায় নিয়ে যায়। অতঃপর রাতের অন্ধকারে সরকারের কিলিং বাহিনী জসিম ভাইকে নির্মমভাবে হত্যা করে ৬০ ফুট রাস্তায় ফেলে যায় এবং পরবর্তীতে বাকি কর্মীদের জেলখানায় প্রেরণ করে। শহীদ জসিম উদ্দীন হাওলাদার শিবিরের সদস্য ও মিরপুর পূর্ব থানার সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। মেধাবী জসিম উদ্দীন কাজীপাড়া মাদরাসায় ফাজিলে অধ্যয়নরত ছিলেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ