বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

আইপিএল নিলামে এবার নেই কোনো বাংলাদেশী

স্পোর্টস রিপোর্টার : এবার আইপিএল নিলামের তালিকায় নেই বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের কোনো ক্রিকেটার। তবে বাংলাদেশ তারকা সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমানকে অবশ্য আগেই রেখে দিয়েছে তাদের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। তাদের সঙ্গে পূর্বের চুক্তি রয়েছে। সাকিবের ওপর এবারও ভরসা রেখেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। আর ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ তো মুস্তাফিজকে ছাড়বে না সেটা জানা কথা। গতকাল আইপিএল নিলামের জন তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। ২০ ফেব্রুয়ারি নিলামে মোট সাত জন ক্রিকেটার সর্বোচ্চ দর পেয়েছেন। যার মধ্যে আছেন ভারতের পেসার ইশান্ত শর্মা, ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার বেন স্টোকস, ক্রিস ওকস ও ওয়ানডে অধিনায়ক ইয়ন মরগান। এদেরবেজ প্রাইজ রাখা হয়েছে দু’কোটি ভারতীয় রুপি। একই মূল্যের বাকিরা হলেন, শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ, অস্ট্রেলিয়ার পেসার মিচেল জনসন ও প্যাট কামিন্স। দেড় কোটি রুপির প্রাইজে আছেন ইংল্যান্ডের জনি বেয়ারস্টো, নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট, অস্ট্রেলিয়ার নাথান লিয়ন ও ব্র্যাড হাডিন, দক্ষিণ আফ্রিকার কাইল অ্যাবট ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের জেসন হোল্ডার। আইপিএল নিলামের প্রাথমিক তালিকায় মোট ৭৯৯ জন ক্রিকেটার ছিলেন। চলতি সপ্তাহে ফ্র্যাঞ্চাইজিরা কাদের ধরে রাখতে চাইছে সেটা জানানোর পর এই তালিকায় বাকি কতজন ক্রিকেটার থাকবেন সেটা চূড়ান্ত হবে। এর মধ্যে বাংলাদেশ আর পাকিস্তান ছাড়া আটটা দেশ থেকে জাতীয় দলে খেলা ১৬০ জন ক্রিকেটার আছেন। ৬৩৯ জন ক্রিকেটার ভারত, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে। এ বছরের আইপিএলের পরই আবার ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে ক্রিকেটারদের চুক্তির  মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে ২০১৮তে মেগা নিলাম হওয়ার কথা। তাই বেশির ভাগ ফ্র্যাঞ্চাইজিই এবার নিলামে বড় ভূমিকা নিয়ে নামবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। ক্রিকেটারদের ধরে রাখার নিয়ম আইপিএলে চালু থাকবে কি না সেটা এখনও চূড়াান্ত নয়। ফ্র্যাঞ্চাইজিরা তাই আশায় রয়েছে নিলামে ‘রাইট-টু-ম্যাচ’ বিকল্প থাকার। যে নিয়মে নির্দিষ্ট সংখ্যার ক্রিকেটারদের নিলামে ছাড়াার পাশাপাশি ফ্র্যাঞ্চাইজিদের কাছে আবার সেই ক্রিকেটারদের কিনে নেওয়ার সুযোগ থাকে। তবে তার জন্য সেই ক্রিকেটারদের সর্বোচ্চ দর মেটানোর শর্ত পূরণ করতে হয় ফ্র্যাঞ্চাইজিকে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ