বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

জামালপুরে শিক্ষার্থীদের পিঠে হাঁটলেন স্কুলের জমিদাতা

স্টাফ রিপোর্টার : স্কুলের ছাত্রদের গড়া মানবসেতুর ওপর দিয়ে চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুর হোসেন পাটোয়ারীর হেঁটে যাওয়ার ঘটনা সারাদেশে সমালোচনার ঝড় তুলেছে। সেই সাথে করা হয়েছে মামলা। এই ঝড়ের মধ্যেও ঘটে গেল একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। জামালপুরে গত ২৯ জানুয়ারি স্কুলের ছোট ছোট শিক্ষার্থীর কাঁধের ওপর পা রেখে হেঁটেছেন ওই স্কুলের জমিদাতা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে তা ছড়িয়ে পড়েছে।
জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার মাহমুদপুর বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের কোমলমতি শিশুছাত্রদের কাঁধে চড়ে হাঁটেন ওই স্কুলের জমিদাতা দিলদার হোসেন ওরফে প্রিন্স। ছাত্রদের কাঁধে দিলদার হোসেনের হেঁটে যাওয়ার ঘটনা বুধবার রাতে ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। এরপর থেকে জেলাজুড়ে তোলপাড়। গত ২৯ জানুয়ারি ওই বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানে এ ঘটনাটি ঘটে।
জানা গেছে, বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান উপলক্ষে ওই বিদ্যালয়ের স্কাউট দলের সদস্যরা একটি মানবসেতু নির্মাণ করে। এর ওপর দিয়ে হেঁটে যান অনুষ্ঠানের অতিথি ও বিদ্যালয়ের জমিদাতা দিলদার হোসেন। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা যায়, বিদ্যালয়ের মাঠে নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা একটি বাঁশ হাতে নিয়ে শুয়ে মানবসেতু নির্মাণ করেছে। দিলদার ওই মানবসেতুর ওপর দিয়ে হেঁটে যান।
এ ব্যাপারে মাহমুদপুর বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষক মো. আছানতুজ্জামান বলেন, ওই দিন বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান ছিল। একসঙ্গে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন শারীরিক কসরত উপস্থাপন করে। সেই সময় শিক্ষার্থীরা মানবসেতু তৈরি করেছিল কিনা, আমি জানি না।
জামালপুরের জেলা প্রশাসক মো. শাহাবুদ্দিন খান বলেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশ সুপারকে অবহিত করেছি।
চাঁদপুরে মামলা, সংঘর্ষ : এদিকে শিক্ষার্থীদের পিঠকে সেতু বানিয়ে জুতা পায়ে তার ওপর দিয়ে হেঁটে যাওয়ার ঘটনায় চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। হাইমচর থানার ওসি  সৈয়দ মাহাবুবুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে আলকিবাজার এলাকায় বিক্ষুব্ধ অভিভাবকরা প্রতিবাদ মিছিল বের করলে উপজেলা চেয়ারম্যান নূর হোসেনের লোকজন বাধা দেয়। এসময় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
 এর আগে এ ঘটনায় বুধবার রাত ১১টার দিকে কাদির গাজী নামের এক অভিভাবক বাদী হয়ে হাইমচর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূর হোসেনসহ ৫ জনকে আসামী করা হয়েছে। মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্ত করছে পুলিশ।
এছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের নির্দেশে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার উন্নয়ন সারোয়ার জাহানকে এ ঘটনার তদন্ত ভার দেয়া হয়েছে। তাকে আগামী তিন দিনের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ