সোমবার ২৯ নবেম্বর ২০২১
Online Edition

দুবাইয়ের রোসোনারি এফসিতে খেলতে যাচ্ছেন  ‘গোলকন্যা’ সাবিনা

স্পোর্টস রিপোর্টার : মালদ্বীপের পর এবার দুবাইতে খেলতে যাচ্ছেন বাংলাদেশ নারী দলের অন্যতম নির্ভরযোগ্য ফুটবলার সাবিনা খাতুন। তিনিই দেশের প্রথম নারী ফুটবলার হিসেবে ২০১৫ সালে মালদ্বীপের ঘরোয়া আসরে পুলিশ ক্লাবের পক্ষে খেলেছেন। মালদ্বীপ উইমেন্স ফুটসাল ফিয়েস্তা টুর্নামেন্টে গোল আর হ্যাটট্রিক করে মাতিয়ে দিয়েছিলেন দ্বীপ দেশটিকে। ৬ ম্যাচে গোল করেছিলেন ৩৭টি। গোল আর হ্যাটট্রিক মালদ্বীপে সাবিনার পরিচিতি এনে দিয়েছে ‘গোলকন্যা’ হিসেবে। এবার এই ‘গোলকন্যা’র সামনে এসেছে মধ্যপ্রাচে খেলার সুযোগ। দুবাইয়ের ক্লাব রোসোনারি এফসিতে ডাক পেয়েছেন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের অধিনায়ক। জানা গেছে,  সাবিনা ও দুবাইয়ের রোসোনারি ক্লাবের মধ্যে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে। তারই প্রেক্ষিতে কাগজ পত্র তৈরী করছে ক্লাবটি। ক্লাব কতৃপক্ষ নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে সাবিনার সাথে। 

এ ব্যাপারে সাবিনা জানান, দুবাইয়ের রোসোনারি ক্লাবের সহকারী কোচ আমার সাথে কথা বলেছেন। সব কিছু ঠিক। ভিসা সংক্রান্ত সব কাজ ওই ক্লাব থেকেই করা হচ্ছে। এখন ভিসার পাওয়ার উপর নির্ভর করছে সেখানে যাওয়া’। দেশ সেরা এই নারী ফুটবলার বলেছেন,  ‘ক্লাবটির টুর্নামেন্ট আছে,  লিগ ম্যাচ আছে। তারা আমাকে ২/৩ মাসের জন্য নেবে। লিগ খেলাবে,  ট্রায়ালও নেবে। তারপর আমার পারফরম্যান্স দেখে দীর্ঘমেয়াদী চুক্তির বিষয়টি আলোচনা করবে। ’

দুবাই যাওয়া-আসার খরচ সাবিনাকেই বহন করতে হবে। রোসোনারি ক্লাব শুধু সম্মানি দেবে। ‘মালদ্বীপ আর দুবাইয়ের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। , দুবাইয়ের দলটিতে বিভিন্ন দেশের খেলোয়াড় থাকবে। ইতিমধ্যে ঐ ক্লাবে ২ জন পাকিস্তানী খেলোয়াড় যোগও দিয়েছেন। ওরা যে সম্মানি দেবে তাতে আমার (সাবিনা) সব খরচ হয়ে যাবে। আমি (সাবিনা) আসলে অর্থকে প্রাধান্য দিচ্ছি না। খেলাকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি। 

উল্লেখ্য সাবিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ নারী দল অনেক সাফল্য পেয়েছে। শিলিগুড়িতে অনুষ্ঠিত নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ রানার্সআপ হয়েছে। দেশকে প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠার পেছনে বড় ভূমিকা ছিল সাবিনার। সাফের পরফরমেন্স পর্যালোচনা করেই সাবিনার সঙ্গে যোগাযোগ করেন দুবাইয়ের রোসোনারি ক্লাবের কর্মকর্তারা। সব কিছুই চূড়ান্ত-এখন ভিসা হলেই দুবাইয়ে উড়াল দেবেন বাংলাদেশ নারী দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো ফুটবল সমৃদ্ধ দেশটির ক্লাব তাকে দলভূক্ত করতে যাচ্ছে। এটা কেবল সাবিনার জন্যই নয়,  দেশের ফুটবলের জন্যও বড় সংবাদ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ