মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের দাবিতে মানববন্ধন

মৌলভীবাজার জেলা সংবাদদাতা: মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা। গত সোমবার দুপুরে কলেজ ক্যাম্পাসে ঘণ্টাব্যপী এই কর্মসূচি পালন করা হয়। শ্রেণীকক্ষ সংকট নিরসনে ২টি ৫তলা একাডেমিক ভবন নির্মাণ, ৮৭টি নতুন শিক্ষকের পদ সৃষ্টি করে প্রতিটি বিভাগে অনার্স মাস্টার্স কোর্স চালু, ১টি ছাত্রাবাস ও ১টি ছাত্রীনিবাস নির্মাণ, যাতায়াত সুবিধার্থে দুটি অত্যাধুনিক বাস প্রদান, ১টি ক্যান্টিন, স্বতন্ত্র পরীক্ষা হল নির্মাণ, ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পৃথক দুটি টয়লেট নির্মাণ, একটি আধুনিক তথ্যকেন্দ্র স্থাপনসহ বিভিন্ন দাবি তোলা হয় মানববন্ধন ও সমাবেশে। ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষে এ সব দাবি তুলে ধরেন মানববন্ধনের সমন্বয়ক কলেজের শিক্ষার্থী জাকের আহমদ অপু। মানববন্ধনে একাত্মতা পোষণ করে বক্তব্য দেন রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. রফি উদ্দিন , উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের প্রভাষক মো. মনোয়ার হুসেন । পরে সাধারণ শিক্ষার্থীরা শিক্ষামন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. মহসীন এর হাতে তুলে দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, দর্শন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বিষ্ণুপদ চৌধুরী, ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. আবু হানিফ ,ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাসক জিয়াউর রহমান। উল্লেখ্য, এ বিদ্যাপীঠে প্রায় ১৭ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত রয়েছে ।

পৌনে তিন লাখ টাকা ছিনতাই : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে শমশেরনগর-কমলগঞ্জ সড়কের জালালিয়া এলাকায় গত মঙ্গলবার ব্র্যাক অফিসের অদূরে প্রকাশ্যে দিবালোকে রাস্তায় মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

ব্র্যাকের ব্যবস্থাপক এস কে বিকাশ জানান, ব্রাঞ্চের হিসাব রক্ষক দুলাল মিয়াকে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা ভানুগাছ বাজারে পূবালী ব্যাংকে জমা করতে রওয়ানা হন। ব্র্যাক অফিসের ৪০০ গজ দূরে যাওয়ার পরই পিছন থেকে অতর্কিতভাবে একটি লাল রংয়ের মোটরসাইকেলে তিন দুর্বৃত্ত এসে আমাদের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে। এ সময়ে দুর্বৃত্তরা ধারালো ছুরি দিয়ে ভয় দেখিয়ে টাকার বেগ ছিনিয়ে নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে বিষয়টি কমলগঞ্জ থানা পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো নজরুল ইসলাম বলেন, ব্র্যাকের পক্ষে মৌখিকভাবে অভিযোগ জানানো হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ