শুক্রবার ২০ মে ২০২২
Online Edition

এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষা শুরু আজ

স্টাফ রিপোর্টার : এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার। এবার ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে ৯ লাখ ১০ হাজার ৫০১ জন ছাত্র এবং ৮ লাখ ৭৬ হাজার ১১২ জন ছাত্রী।
প্রথম দিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এসএসসিতে বাংলা (আবশ্যিক) প্রথমপত্র, সহজ বাংলা প্রথমপত্র, বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশের সংস্কৃতি প্রথমপত্রের পরীক্ষা হবে। মাদরাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে প্রথম দিন কুরআন মাজিদ ও তাজবীদ এবং কারিগরিতে বাংলা-২ বিষয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ বছর থেকেই পরীক্ষা বহুনির্বাচনী (এমসিকিউ) প্রশ্নপত্রে ১০ নম্বর কমছে, অপরদিকে সৃজনশীল বা রচনামূলকে (তত্ত্বীয়) ১০ নম্বর বাড়ছে।
শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ সকাল ১০টায় রাজধানীর ধানমন্ডির গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুল পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন। এর আগে মঙ্গলবার শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সচিবালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন।
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এবার আট বোর্ডের অধীনে এসএসসিতে ১৪ লাখ ২৫ হাজার ৯০০ জন, মাদরাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৫০১ ও এসএসসি ভোকেশনালে (কারিগরি) এক লাখ ৪ হাজার ২১২ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দেবে।
তত্ত্বীয় পরীক্ষা ২ মার্চ শেষ হবে। ব্যবহারিক পরীক্ষা ৪ মার্চ হতে শুরু হয়ে ১১ মার্চ শেষ হবে। এবার ৩ হাজার ২৩৬টি কেন্দ্রে ২৮ হাজার ৩৪৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা দেবে।
এবার নিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৬ লাখ ৭ হাজার ১২৪, অনিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা এক লাখ ৭৬ হাজার ১৯৮ ও বিশেষ (১ থেকে ৪ বিষয়ে পরীক্ষা দেবে) পরীক্ষার্থীর সংখ্যা এক লাখ ৪৫ হাজার ২৯৮ জন। বিদেশে আটটি কেন্দ্রের মাধ্যমে পরীক্ষা নেয়া হবে। এ সব কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪৪৬ জন।
এবার প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, কেউ মিথ্যা ফাঁস হওয়া প্রশ্নের পেছনে ছুটলে ক্ষতি ছাড়া কোন লাভ হবে না। কেউ ফেসইবুকে ভুয়া প্রশ্ন তুলে দিলে বিটিআরসি সঙ্গে সঙ্গে সেই লিংক বন্ধ করে দেবে।
এ বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় কেন্দ্র সচিবরাও স্মার্ট ফোন নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবে না। পরীক্ষা কেন্দ্রে একমাত্র কেন্দ্র সচিবরাই ফোন বহন করতে পারেন। এখন তাদের ছবি তোলা যায় না এমন ফোন ব্যবহার করতে হবে।
শিক্ষামন্ত্রী জানান, ইতোমধ্যে এ বিষয়টি কেন্দ্র সচিবদের জানিয়ে দেয়া হয়েছে। কেউ কেন্দ্রে স্মার্ট ফোন ব্যবহার করলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
বাংলা দ্বিতীয়পত্র এবং ইংরেজি প্রথম ও দ্বিতীয়পত্র ছাড়া সকল বিষয়ে সৃজনশীল প্রশ্নপত্রে এসএসসি পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। এ বছর থেকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা নামে দুটি নতুন বিষয় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।
আগের মতোই দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পালসিজনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখক) সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। এ ধরনের পরীক্ষার্থীদের এবং শ্রবণ প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় পাবে।
এছাড়া অটিস্টিক, ডাউন সিনড্রোম আক্রান্ত পরীক্ষার্থীদের অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় বৃদ্ধিসহ শিক্ষক, অভিভাবক বা সাহায্যকারীর বিশেষ সহায়তায় পরীক্ষা দেয়ারও সুযোগ থাকছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ